Ad Space

তাৎক্ষণিক

  • ভোটের ‘ধর্মীয় সেন্টিমেন্টে’ ভাস্কর্য সরানোর ‘পক্ষে’ আ’লীগ-বিএনপি– বিস্তারিত....
  • আমরা আজ হেরে গেলাম : ভাস্কর মৃণাল হক– বিস্তারিত....
  • নতুনদের জন্য ভিডিও এডিটিং কোর্স নিয়ে এলো বিআইটিএম– বিস্তারিত....
  • সৌদিতে রোজা শুরু শনিবার, বাংলাদেশে রবিবার– বিস্তারিত....
  • পূর্ণ আত্মবিশ্বাস নিয়ে ইংল্যান্ডে বাংলাদেশ দল– বিস্তারিত....

দুর্গাপুরে বাল্যবিয়ে থেকে রক্ষা পেলো দুই স্কুল ছাত্রী

ডিসেম্বর ২৩, ২০১৬

নিজস্ব প্রতিবেদক, দুর্গাপুর : রাজশাহীর দুর্গাপুরে জান্নাতুন ফেরদৌস মিষ্টি (১৫) ও রুপালী খাতুন (১৪) নামের দুই স্কুল ছাত্রীর বাল্যবিয়ে বন্ধ করে দিয়েছে উপজেলা প্রশাসন। শুক্রবার বাল্যবিয়ের প্রস্তুতিকালে উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তারা গিয়ে বাল্যবিয়ে বন্ধ করে দেন।

মিষ্টি জয়কৃঞ্চপুর গ্রামের শফিকুল ইসলামের ও রুপালী তেবিলা গ্রামের হুজুর আলীর মেয়ে। পরে কনের পিতাদের ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে কারাদণ্ড দেওয়া হয়।

উপজেলা মহিলা বিয়ষক কর্মকর্তা মাক্বামাম মাহমুদা রিপা জানান, শুক্রবার উপজেলার জয়কৃঞ্চপুর গ্রামের স্কুল পড়–য়া মেয়ে জান্নাতুন ফেরদৌস মিষ্টির  বাল্যবিয়ের প্রস্তুতি চলছিলো। এসময় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে খবর পেয়ে অফিসের হিসাব-রক্ষক মিজানুর রহমান বিয়ে বাড়িতে অভিযান চালিয়ে কনের পিতাকে থানায় নিয়ে আসে। পরে রাত সাড়ে ৮টার দিকে ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে মেয়েকে বাল্যবিয়ে দেওয়ার অপরাধে কনের পিতাকে ৭দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করেন ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আক্তারুন্নাহার।

একই দিনে উপজেলার তেবিলা গ্রামের স্কুল পড়–য়া ছাত্রী রুপালী খাতুনের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে বাল্যবিয়ে বন্ধ করে দেন অফিসের হিসাব-রক্ষক মিজানুর রহমান। পরে উভয় পক্ষ বসে মেয়েকে ১৮ বছরের নিচে বিয়ে দিবে না বলে মুচলেকা নেওয়া হয়।