Ad Space

তাৎক্ষণিক

  • মোহনপুরে দুই সহদোরের শয়নকক্ষে মিললো গোখরার ৫৬ বাচ্চা– বিস্তারিত....
  • রাজশাহীর ২০০ শিক্ষার্থী পেল জেলা পরিষদের বৃত্তি– বিস্তারিত....
  • নিরাপত্তার প্রশ্নে কোনো আপোস নয় : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী– বিস্তারিত....
  • মোহনপুরে তিনদিন ব্যাপি ফলদ ও বৃক্ষমেলার উদ্বোধন– বিস্তারিত....
  • মানবপাচারের অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় থাই জেনারেলের কারাদণ্ড– বিস্তারিত....

আজ ভাগ্য নির্ধারণী ইলেক্টোরাল কলেজ ভোট

ডিসেম্বর ১৯, ২০১৬

সাহেব-বাজার ডেস্ক : ইলেক্টোরাল ভোটের মধ্য দিয়ে নাটকীয় মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের পর্দা নামবে আজ। সোমবার আনুষ্ঠানিকভাবে গৃহীত হতে যাচ্ছে মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের জন্য অতি গুরুত্বপূর্ণ ইলেক্টোরাল কলেজ ভোট। মার্কিন রীতি অনুযায়ী ৫৩৮ জন ইলেকটর বা নির্বাচক ১৯ ডিসেম্বর দেশজুড়ে কংগ্রেস ভবনগুলোয় ভোট দিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন করবেন।

দীর্ঘদিন ধরেই ইলেকটোরাল কলেজ বা নির্বাচকমণ্ডলীর ভোট নিছক একটা আনুষ্ঠানিকতার ব্যাপার হলেও গত ৮ নভেম্বরের ভোটে ট্রাম্পের অপ্রত্যাশিত বিজয় এ পদ্ধতিকে আবার আলোচনায় নিয়ে এসেছে। মার্কিন নির্বাচনে রুশ হস্তক্ষেপের অভিযোগ সেই আলোচনাকে করেছে জোরদার। ট্রাম্প নিজেও এই ইলেকটোরাল কলেজ ভোটের কড়া সমালোচনা করেছিলেন ২০১২ সালে যখন জনপ্রিয় ভোটে এগিয়ে থেকে ইলেকটোরাল ভোটে হেরে গিয়েছিলেন মিট রমনি। ভাগ্যের কি নির্মম পরিহাস এবার নিজেই জনপ্রিয় ভোটে পিছিয়ে থাকলেও ইলেকটোরাল ভোটে এগিয়ে থেকে প্রেসিডেন্ট হতে যাচ্ছেন। একইভাবে ২০০০ সালের নির্বাচনেও আল গোর হেরে গিয়েছিলেন জর্জ ডব্লিউ বুশের কাছে।

দেশটির প্রথম নারী প্রেসিডেন্ট হওয়ার খুব কাছাকাছি যাওয়া হিলারি ক্লিন্টন শ্বেতাঙ্গ ডেমোক্রেটদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি ভোট পেয়েছেন, ডোনাল্ড ট্রাম্পের চেয়ে ২.৮ মিলিয়ন বেশি জনপ্রিয় ভোট পেয়েছেন। হিলারি ক্লিন্টন যেখানে মোট ভোটের ৪৮.২% পেয়েছেন সেখানে ট্রাম্প পেয়েছেন ৪৬.২%।

কিন্তু ইলেকটোরাল কলেজ ভোটে ট্রাম্প স্পষ্ট ব্যবধানে এগিয়ে আছেন। ট্রাম্পের ঝুলিতে পড়েছে এ ভোটের ৩০৬টি আর হিলারির পেয়েছেন ২৩২টি। প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হওয়ার জন্য ট্রাম্পের দরকার ২৭০টি ভোট। তাই আজ যদি সেই নির্বাচকেরা ঠিকমতো নিজ নিজ দলের প্রার্থীর পক্ষে ভোট দেন তাহলে ট্রাম্প পাবেন ৩০৬ ভোট, যা প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হতে প্রয়োজনীয় ২৭০-এর চেয়ে অনেক বেশি। তবে ট্রাম্পের জন্য শঙ্কার বিষয় হলো, তাঁর উল্লেখযোগ্যসংখ্যক নির্বাচক ‘বিদ্রোহ’ করে বসলে দৃশ্যপট পাল্টে যেতে পারে।

পত্রপত্রিকার খবর অনুযায়ী, তাঁদের বেশ কয়েকজন এ ধরনের ইঙ্গিতও দিয়েছেন। নির্বাচনে রুশ সরকার ট্রাম্পকে জেতাতে কলকাঠি নেড়েছে বলে মার্কিন গোয়েন্দা প্রতিবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে অন্তত ৬৭ জন নির্বাচক এ বিষয়ে আরও তদন্ত দাবি করেছেন। তবে এখানে ভয়ের কিছু নেই এ কারণে যে এই ৬৭ জনের একজন ছাড়া বাকি সবাই ডেমোক্রেট!

এবারের নির্বাচনে যুক্তরাষ্ট্রের ১৩ কোটি ৬০ লাখের বেশি ভোটার রিপাবলিকান প্রার্থী ট্রাম্প ও ডেমোক্রেটিক প্রার্থী হিলারিকে ভোট দেওয়ার পাশাপাশি দেশজুড়ে অঙ্গরাজ্যগুলোতে দলীয় মনোনয়ন পাওয়া ৫৩৮ জন ইলেকটর বা নির্বাচককে বেছে নিয়েছেন। যে প্রার্থী কোনো অঙ্গরাজ্যের সাধারণ জনগণের ভোট (পপুলার ভোট) বেশি পাবেন, তিনিই ওই অঙ্গরাজ্যের সব ইলেকটোরাল কলেজ বা নির্বাচকদের ভোট পেয়ে যান। সূত্র: সিএনএন।