Ad Space

তাৎক্ষণিক

  • রাজশাহীতে বিস্ফোরকসহ আটকদের জঙ্গি সংশ্লিষ্টতা খুঁজছে পুলিশ– বিস্তারিত....
  • বাংলাদেশের ব্যাটিংয়ে বৃষ্টি বাঁধা– বিস্তারিত....
  • ৩১১ রানে অলআউট শ্রীলঙ্কা, তাসকিনের হ্যাটট্রিক– বিস্তারিত....
  • দেড় কোটি টাকা নিয়ে উধাও জনতা সঞ্চয় ও ঋণদান সমবায় সমিতি– বিস্তারিত....
  • মোহনপুরে দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির মানববন্ধন– বিস্তারিত....

আবারও বিমানবন্দরে আটকে দেওয়া হল লাদেনপুত্রকে

ডিসেম্বর ১৮, ২০১৬

সাহেব-বাজার ডেস্ক : আন্তর্জাতিক জঙ্গিগোষ্ঠী আল-কায়েদার প্রয়াত প্রধান ওসামা বিন লাদেনের ছেলে ওমর বিন লাদেনকে শনিবার (১৭ ডিসেম্বর) মিসরের বিমানবন্দরে আটকে দেওয়া হয়েছে। তাঁকে ও তাঁর ব্রিটিশ স্ত্রী জায়না আল সাবাহকে মিসরে ঢুকতে দেওয়া হয়নি। দেশটির বিমানবন্দর সূত্রের বরাত দিয়ে রয়টার্স এ খবর প্রকাশ করে।

খবরে বলা হয়, লাদেনপুত্রকে কী কারণে মিসরে ঢুকতে দেওয়া হয়নি, তার কোনো ব্যাখ্যা বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ জানায়নি। ওমর ও জায়না দোহা থেকে মিসরে এসেছিলেন। তাঁদের মিসরে ঢুকতে না দিয়ে তুরস্কে পাঠিয়ে দেওয়ার কথা বলা হয়।

ওমর-জায়না দম্পতি ২০০৭ থেকে ২০০৮ সালের কয়েক মাস মিসরে ছিলেন। ২০০৮ সালেও একবার তাঁদের মিসরে ঢুকতে বাধা দেওয়া হয়েছিল। ওমর বিন লাদেন ১৯৯৬ থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত আফগানিস্তানের থাকার পর বাবা ওসামা বিন লাদেনের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করে ফেলেন।

২০১০ সালে রয়টার্সকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে ওমর বলেন, তিনি ও তাঁর সন্তানেরা কেউ আল-কায়েদার সঙ্গে যুক্ত নন। তিনি ও তাঁর সন্তানেরা বিশ্বের ভালো নাগরিক হওয়ার চেষ্টা করছেন। তবে ওসামা বিন লাদেনের স্বজন হওয়ায় তাঁর ও তাঁর সন্তানদের জন্য বিষয়টি কঠিন হয়ে দাঁড়িয়েছে। তিনি বলেছিলেন, আমরা আমার অন্য ভাই ও তাদের সন্তানদের আমাদের দলে ভেড়াতে ইরান ও সৌদি সরকারের সঙ্গে কাজ করছি।

মার্কিন নেভি সিলের হাতে ২০১১ সালে পাকিস্তানে আত্মগোপনে থাকা অবস্থায় নিহত হন ২০০১ সালের ১১ সেপ্টেম্বরে টুইন টাওয়ারে হামলার হোতা ওসামা বিন লাদেন।