Ad Space

তাৎক্ষণিক

  • মোহনপুরে দুই সহদোরের শয়নকক্ষে মিললো গোখরার ৫৬ বাচ্চা– বিস্তারিত....
  • রাজশাহীর ২০০ শিক্ষার্থী পেল জেলা পরিষদের বৃত্তি– বিস্তারিত....
  • নিরাপত্তার প্রশ্নে কোনো আপোস নয় : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী– বিস্তারিত....
  • মোহনপুরে তিনদিন ব্যাপি ফলদ ও বৃক্ষমেলার উদ্বোধন– বিস্তারিত....
  • মানবপাচারের অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় থাই জেনারেলের কারাদণ্ড– বিস্তারিত....

রাবি ক্রপ সায়েন্স এন্ড টেকনোলোজি বিভাগের সভাপতির পদত্যাগ দাবি

ডিসেম্বর ১৭, ২০১৬

রাবি প্রতিবেদক : রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) ক্রপ সায়েন্স এন্ড টেকনোলোজি বিভাগের সভাপতি ড. মোসলেহ্ উদ্দীনের বিরুদ্ধে অসদাচরণ ও গালমন্দ করার অভিযোগ এনে পদত্যাগের দাবি জানিয়েছেন বিভাগের শিক্ষকরা।

বিভাগের শিক্ষকরা জানান, সভাপতি ড. মোসলেহ্ উদ্দীন অকারণেই বিভাগের শিক্ষকদের সাথে রাগারাগি ও গাল মন্দ করেন। তিনি বিভাগে কৃষিবিদ ও অকৃষিবিদ প্রসঙ্গ এনে শিক্ষকদের মধ্যে সুসম্পর্ক নষ্ট করার চেষ্টা করছেন। এজন্য তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের স্কুল পরিচালনা পরিষদের সদস্য পদ থেকে গত আট তারিখে পদত্যাগ করেছেন যা বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য অপমানজনক। এরই পরিপ্রেক্ষিতে মোসলেহ্ উদ্দীনের পদ ত্যাগ ও নতুন সভাপতি নিয়োগের দাবি জানিয়ে গত ১০ তারিখে উপাচার্য বরাবরা আবেদন করেন বিভাগের শিক্ষকরা। সেই আবেদন পত্রে বিভাগের ১৩ জন শিক্ষকের মধ্যে ৯ জন স্বাক্ষর করেন।

বিভাগের শিক্ষক ড. এম আলি বাকী বরকতুল্লা অভিযোগ করে বলেন, বিভাগের সহকর্মী হিসেবে চাকরি জীবনের শুরু থেকে দেখে আসছি মোসলেহ্ উদ্দীন সকলের সাথে দুর্ব্যবহার করেন। এটা তার অভ্যাস। বিভাগের সভাপতি হওয়ার পর তিনি পুরোপুরি স্বেচ্ছাচারী হয়ে গেছেন। কোনো কারণ ছাড়াই বিভাগের অন্য শিক্ষকদের বকাঝকা করেন তিনি ।

তবে এসকল অভিযোগ মিথ্যা দাবি করে ড. মোসলেহ্ উদ্দীন বলেন, অন্যায়ের প্রতিবাদ করায় কয়েকজন শিক্ষক আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের স্কুল পরিচালনা পরিষদের সদস্য পদ থেকে পদত্যাগ করার পরই আমার বিরুদ্ধে বিভিন্ন অপচারও শুরু করেছেন অনেক শিক্ষক।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচায অধ্যাপক মুহাম্মদ মিজানউদ্দিন বলেন, আমার হাতে এখনো অভিযোগ পত্র আসেনি। অভিযোগপত্র পেলে বিষয়টি খতিয়ে দেখা হবে। তবে আমি শুনেছি এটা  বিভাগের অভ্যান্তরীণ সমস্যা।