নভেম্বর ২৩, ২০১৭ ১:৩১ অপরাহ্ণ

Home / slide / দূর্গাপুরে দিনভর প্রচারণা মোহাম্মদ আলী সরকারের

দূর্গাপুরে দিনভর প্রচারণা মোহাম্মদ আলী সরকারের

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজশাহীর দুর্গাপুর উপজেলায় দিনভর নির্বাচনী প্রচারণা চালালেন জেলা পরিষদ নির্বাচনের চেয়ারম্যান প্রার্থী মোহাম্মদ আলী সরকার। মঙ্গলবার নিজস্ব কর্মী-সমর্থকদের নিয়ে দুর্গাপুরের বিভিন্ন এলাকায় ভোটারদের কাছে গিয়ে তিনি নিজের আনারস প্রতীকে ভোট প্রার্থনা করেন।

ভোটাররাও এ সময় তাকে ভোট দিয়ে জয়ী করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন। নির্বাচনে ভোট দেয়ার সুযোগ আসায় ভোটারেরাও জেলা পরিষদকে নিয়ে মোহাম্মদ আলী সরকারের কাছে তুলে ধরেন জনকল্যাণমূলক কিছু দাবি। নির্বাচিত হলে মোহাম্মদ আলী সরকার সেগুলো বাস্তবায়নেরও প্রতিশ্রুতি দেন।

মঙ্গলবার সকালে মোহাম্মদ আলী সরকার দুর্গাপুরের হাট কানপাড়া বাজারে জয়নগর ইউনিয়ন পরিষদের জনপ্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠক করেন। মোহাম্মদ আলীর আগমনের খবরে ইউপি চেয়ারম্যান শমসের আলী তার পরিষদের সকল সদস্যদের নিয়ে নিজের চেম্বারে জড়ো হয়েছিলেন। পরে মোহাম্মদ আলী সরকার সেখানে গেলে তাদের মধ্যে আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়।

পরে মোহাম্মদ আলী সরকার উপজেলার কিশোরপুর গ্রামে উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান বানেসা বেগমের বাড়িতে গিয়ে তার সঙ্গে সাক্ষাত করেন। এরপর তিওরকুড়ি গ্রামে দেলুয়াবাড়ি ইউনিয়ন পরিষদের জনপ্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠক করেন মোহাম্মদ আলী সরকার। প্রায় ঘন্টাব্যাপি ওই বৈঠকে ইউপি চেয়ারম্যান রিয়াজুল ইসলামসহ তার পরিষদের সকল সদস্য উপস্থিত ছিলেন।

এ দিন বেলা ৩টার দিকে মোহাম্মদ আলী সরকার দুর্গাপুরের তাহেরপুরে কিশমত গণকৈড় ইউপির চেয়ারম্যান আফসার উদ্দিন মোল্লার বাড়িতে গিয়ে তার সঙ্গে সাক্ষাত করেন। এরপর তিনি নওপাড়া ইউনিয়ন পরিষদে গিয়ে সেখানকার জনপ্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠকে অংশ নেন। বৈঠকে ইউপি চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলামসহ সকল সদস্য উপস্থিত ছিলেন।

এছাড়াও এ দিন দুর্গাপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম ও পৌর মেয়র তোফাজ্জল হোসেনের সঙ্গে মোহাম্মদ আলী সরকারের সাক্ষাত হলে তিনি তাদের কাছে দোয়া চান। সন্ধ্যায় তিনি উপজেলা সদরে পানানগর ইউপির চেয়ারম্যান আজাহার খানের সঙ্গে সাক্ষাত করেন। এ সময় তারা সবাই মোহাম্মদ আলী সরকারকে সহযোগীতার আশ্বাস দেন।

জেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে মোহাম্মদ আলী সরকার ও পরিষদের সাবেক প্রশাসক মাহবুব জামান ভুলু প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। আগামী ২৮ ডিসেম্বর ১৫টি ভোটকেন্দ্রে সকাল ৯টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ চলবে।

রাজশাহী সিটি করপোরেশনসহ জেলার সবগুলো পৌরসভা, উপজেলা পরিষদ ও ইউনিয়ন পরিষদের জনপ্রতিনিধিরা এই নির্বাচনের ভোটার। মোট ভোটার সংখ্যা এক হাজার ১৭১ জন। প্রার্থীদের প্রচারণায় এরই মধ্যে জমে উঠেছে নির্বাচন।

Print Friendly, PDF & Email

Check Also

রাজশাহী-কলকাতা ট্রেনের দাবিতে এমপি বাদশার স্মারকলিপি

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজশাহী-কলকাতা রুটে দ্রুত যাত্রীবাহী ট্রেন চলাচল শুরু করার দাবিতে ঢাকায় নিযুক্ত ভারতীয় …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *