অক্টোবর ১৮, ২০১৭ ৬:০৩ পূর্বাহ্ণ

Home / slide / বাবলু জোয়ারদারের পাঁচটি কবিতা
বাবলু জোয়ারদারের পাঁচটি কবিতা
বাবলু জোয়ারদারের পাঁচটি কবিতা

বাবলু জোয়ারদারের পাঁচটি কবিতা

ভালবাসা হোক

নদীর গহীন ভেতরে চর জেগেছে
বুকের গহীন ভেতরে চর জেগেছে

জলবনত মেঘ পালিয়েছে অভিমানে
জলহীন চরাচরে কেবলই খরার আগুন
ধূসর প্রান্তর ধূসর আকাশ, রাশি রাশি
দুঃস্বপ্নের ভেতর মানুষ খোঁজে মানবিক আশ্রয়
সবুজ সজীবতা আর ফুলেল ভালবাসা
মানুষ খোঁজে শ্রাবণ দিনের জল সম্ভার
খোঁজে বৃষ্টিপাত
গাংচিল
গহীন গাঙের জোয়ার

অনিদ্রায় কেটে গেলে রাত ভালবাসাহীন
ধূসরতা জেগে ওঠে বুকের ভেতর
চোখের ভেতর
অস্তিত্বহীনতার শঙ্কায় ডেকে ওঠে পানকৌড়ি

মানবিক উচ্চারণে ভালবাসার বান ডাকুক
জোসনার প্লাবণ হোক বুকের ভেতর
হোক শ্রাবণ মেঘের গুরু গর্জন
বৃষ্টিপাত
গহীন গাঙ ভরে উঠুক জোয়ারে
গাঙচিল ফিরে আসুক আর একবার
প্রিয়তমা, আর একবার জোসনার জোয়ারে
ভালবাসা হোক তোমার আমার

জন্মের সুতীব্র চিৎকার

এখন শরতের কাশবনে শিকারিরা ওঁত পেতে থাকে, স্বপ্নেরা ওপথে হেঁটে
গেলে বারুদগন্ধ খেয়ে নেয় তাদের। রোদের পাড় ভেঙে ভেঙে অন্ধকার
ধেয়ে আসে, নীল যন্ত্রণা ধেয়ে আসে, কবিতার ভেতর ঘুনপোকা বাসা বেঁধে
স্বয়ং কবিকে খেয়ে নিতে চায়।

চারপাশে স্বজনের চোখের ভেতর শকুন উড়ে যায়, তীক্ষ্ণ ধারালো নখের ঈগল
খেলা করে মস্তিষ্কের ভেতর। তখন ছলছলে জলের ভেতর আগুন আতঙ্কে পুড়ে
যায় সাধের ঘর দোর, ফুলের বিছানা, প্রেম প্রেম স্বপ্নের সবটুকু ভবিষ্যত। তখন
ক্লান্তি গলে গলে নোনা ঘাম ঝরে, নোনা ঘামের সমুদ্রের ভেতর একাকী সাঁতরায়
কবি ।

কালো অন্ধকার জানালা গলে ঢুকে পড়ে মানুষের ঘরে। চতুর বণিক চুরি করে নেয়
স্বপ্নের আল্পনাহার, ফুলের সৌরভ! রঙধনু আকাশ ঢেকে দেয় কালো মেঘ, মেঘের
ভেতর থেকে নেমে আসে দৈত্য-দানোর দল। চারদিকে নিনাদের ভেতর বাড়তে
থাকে মৃত্যুর মিছিল, ক্রমাগত বাড়তে থাকে…

জন্মের সুতীব্র চিৎকার বুকে নিয়ে মৃত্যুর মিছিলে হেঁটে যায় কবি একা…

বৃক্ষ

ব্যথায় কাতর হতে হতে উত্তেজনায়
অন্ধকারের ভেতর নিষ্পত্র হয়ে যায়
যেন নিষ্প্রাণ দেহ পড়ে থাকে শোকের ভেতর
অতঃপর পুনর্জন্ম ফাল্গুনে
পবিত্র আলোর স্পর্শে…

কথা কহো

রিদিকা তুমি ভালবাসার কথা কহো
গোলাপ গন্ধের কথা
জোসনার রৌদ্রের কথা
কদম্ব ফুল আষাঢ়ের সোহাগের কথা কহো

নিকষ রাতে মুখোমুখি কথা কহো
অধরে অধর ছুঁয়ে
হৃদয়ে হৃদয় ছুঁয়ে
অনন্ত ভালবাসার কথা কহো

পাখি দিনের কথা কহো
সুহাসিনী নদীর কথা
সৌহার্দ্য সড়কের কথা
হৈ হৈ লৌকিকতার কথা কহো

সূর্য ভোর প্রত্যাশার কথা কহো
জলছত্রের কথা
কাব্য সুখের কথা
নিরুদ্বিগ্ম রাত্রির কথা কহো
রিদিকা তুমি ভালবাসার কথা কহো

আমি স্থিত হলাম

সেদিন সূর্য হেসেছিল কিম্বা হাসেনি
যখন তুমি বললে : মানুষ হও
তারপর থেকে মানুষ হতে হতে
আমি মানুষের আদল ভুলে গেছি
চারপাশে পক্ষপাতদুষ্ট স্বরলিপি
চারপাশে পক্ষপাতদুষ্ট বর্ণমালা
আর অসীম ছাউনির নিচে উদ্বাস্তু জীবন
এইসব বিকারের ভেতর আমি মানুষের আদল ভুলে গেছি

সেদিন পাখিরা হেসেছিল কিম্বা হাসেনি
যখন তুমি বললে : স্বপ্ন বুনে দাও অবিরত
তারপর স্বপ্ন বুনতে বুনতে স্বপ্ন দেখা ভুলে গেছি
চারপাশে উদয়ন্ত হননের খেলা
চারপাশে দুষিত বায়ুর আবহ সংগীত
সূর্যের আলোর ভেতর অন্ধকারের জলছবি
মনুষ্যভোজী জন্তুর বিকৃত মুখাবয়ব
এইসব বিকারের ভেতর আমি স্বপ্ন দেখা ভুলে গেছি

অতঃপর তুমি বললে : স্থিত হও
মাটির সোহাগ মেখে আমি স্থিত হলাম

শিল্পী : মোস্তাফিজ কারিগর

Print Friendly, PDF & Email

Check Also

রাবির ভর্তি পরীক্ষায় থাকছে ভ্রাম্যমাণ আদালত

রাবি প্রতিবেদক : আগামী ২২-২৬ অক্টোবর পর্যন্ত রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় (রাবি) ২০১৭-১৮ স্নাতক প্রথম বর্ষের ভর্তি …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *