Ad Space

তাৎক্ষণিক

  • বিভিন্ন দাবিতে প্রধানমন্ত্রীকে স্মারকলিপি প্রদান করেছে ইয়্যাস নেতৃবৃন্দ– বিস্তারিত....
  • কর্মচারীদের নির্বাচনে দুই কর্মকর্তার প্রভাব বিস্তারের অভিযোগ– বিস্তারিত....
  • রাজশাহী বিভাগে এক হচ্ছে রবি-এয়ারটেল নেটওয়ার্ক– বিস্তারিত....
  • রমজানে চাহিদা পুরণ করছে বাঘার মুড়ি– বিস্তারিত....
  • গুজবে বরখাস্ত দুই স্কুল শিক্ষক!– বিস্তারিত....

মাছ-মুরগীর খাদ্যে ট্যানারি বর্জ্যের ব্যবহার বন্ধের রায় বহাল

ডিসেম্বর ৭, ২০১৬

সাহেব-বাজার ডেস্ক : মুরগী ও মাছের খাবার তৈরিতে ট্যানারি বর্জ্য ব্যবহার বন্ধে হাইকোর্টের দেওয়া রায় বহাল রেখেছেন আপিল বিভাগ। বুধবার (৭ ডিসেম্বর) আপিল বিভাগের বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বে তিন সদস্যের বেঞ্চ এ রায় দেন। আদালতে রিট আবেদনের পক্ষে ছিলেন মনজিল মোরসেদ।

২০১০ সালের ২৬ জুলাই জনস্বার্থে হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড পিস ফর বাংলাদেশের পক্ষে অ্যাডভোকেট মনজিল মোরসেদ এ বিষয়ে একটি রিট মামলা দায়ের করেছিলেন।

আবেদনে বলা হয়, ট্যানারি বর্জ্য ব্যবহার করে তৈরি করা খাদ্য মুরগী ও মাছ উভয়ের জন্যই অস্বাস্থ্যকর। এসব অস্বাস্থ্যকর খাদ্য দিয়ে চাষ করা মুরগী ও মাছ খেলে মানুষেরও মারাত্মক স্বাস্থ্য সমস্যা দেখা দিতে পারে।

এরপর ২০১১ সালের ২১ জুলাই বিচারপতি এএইচএম শামসুদ্দিন চৌধুরী ও বিচারপতি গোবিন্দ চন্দ্র ঠাকুরের বেঞ্চ এক মাসের মধ্যে বর্জ্য থেকে মাছ-মুরগীর খাবার তৈরির কারখানা বন্ধের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

এর বিরুদ্ধে লিভ টু আপিল করেন এরকম একটি কারখানা শোয়েব এন্টারপ্রাইজের মালিক গোলাম সারোয়ার। বুধবার (৭ ডিসেম্বর) তার আবেদন খারিজ করে দেন আপিল বিভাগ।