Ad Space

তাৎক্ষণিক

চাঁপাইনবাবগঞ্জে ২ জেএমবি সদস্যের ২০ বছর কারাদণ্ড

নভেম্বর ৩০, ২০১৬
চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি : চাঁপাইনবাবগঞ্জে পৃথক দুই অস্ত্র মামলায় জামায়াতুল মোজাহিদিন বাংলাদেশ (জেএমবি) ২ জন সদস্যকে ২০ বছর করে সশ্রম কারাদণ্ডাদেশ প্রদান করেছেন আদালত। চাঁপাইনবাবগঞ্জ স্পেশাল ট্রাইব্যুন্যাল-২-এর বিচারক অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ মো. জিয়াউর রহমান আজ দুপুরে এই আদেশ প্রদান করেন।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন, জেলার গোমস্তাপুর উপজেলার কলাইদিয়াড় গ্রামের তৈয়ব আলীর ছেলে মমিন (২৮) ও ভোলাহাট উপজেলার খড়কপুর ঘুনটোলা গ্রামের তোফাজ্জল হকের ছেলে রমজান আলী (৩১)।

মামলার এজাহারে জানা যায়, ২০০৯ সালের ১৪ জুন ৫ রাউন্ড গুলি, অস্ত্র তৈরীর সরঞ্জামাদি ও জিহাদী বইসহ শিবগঞ্জ উপজেলার খড়গপুর এলাকা থেকে মমিনকে গ্রেফতার করে শিবগঞ্জ থানা পুলিশ। এঘটনায় এসআই আমিনুল ইসলাম বাদী হয়ে মমিনের বিরুদ্ধে ওই দিনই শিবগঞ্জ থানায় মামলা দায়ের করেন। ওই ঘটনায় মমিনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই মিজানুর রহমান।

আদালত মমিনের উপস্থিতিতে তাকে ২০ বছরের সশ্রম কারাদণ্ডাদেশ প্রদান করেন। অপরদিকে ২০০৯ সালের ১৭ জুন ভোলাহাট উপজেলার খড়কপুর ঘুনটোলা এলাকার রমজানের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে পুলিশ ১টি ওয়ান শুটারগান ও ৩ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করে। এসময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে রমজান পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় ওই দিনই এসআই মিজানুর রহমান বাদী হয়ে ভোলাহাট থানায় রমজান ও মমিনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে।

ওই ঘটনায় ২০০৯ সালের ১৪ আগষ্ট রমজান ও মমিনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই ওহিদুজ্জামান। আদালত রমজানের অনুপস্থিতিতে তাকে ২০ বছরের সশ্রম কারাদণ্ডাদেশ ও মমিনকে খালাস প্রদান করেন। এদিকে এ রায়ে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন চাঁপাইনবাবগঞ্জের পাবলিক প্রসিকিউটর জবদুল হক।