Ad Space

তাৎক্ষণিক

  • নাটোরে ত্রিমুখী সংঘর্ষে দুই মোটরসাইকেল আরোহীর মৃত্যু– বিস্তারিত....
  • রাজশাহীতে ঈদের জামাতে জঙ্গিবাদ পরিহারের আহ্বান– বিস্তারিত....
  • ঈদ শুভেচ্ছা কমেছে কার্ডে, বেড়েছে পোস্টারে– বিস্তারিত....
  • নাটোরে ব্যাংকের বুথে টাকা শূণ্য, ভোগান্তিতে গ্রাহকরা– বিস্তারিত....
  • রাজশাহীতে কোথায় কখন ঈদের জামাত– বিস্তারিত....

দুর্গাপুরে বাবার ওপরে অভিমান করে স্কুলছাত্রের আত্মহত্যা

নভেম্বর ৩০, ২০১৬

নিজস্ব প্রতিবেদক, দুর্গাপুর : দুর্গাপুর পৌর সদরে পছন্দমতো স্যান্ডেল কিনে না দেয়ায় বাবার ওপর অভিমান করে মেজবাহউল আলম সাদ (১০) নামের এক স্কুলছাত্র আত্মহত্যা করেছে। সাদ পৌর সদরের রাইজিং সান কিন্ডার গার্ডেনের ছাত্র। বুধবার বিকেল ৩ টার দিকে নিজ বাড়ির শয়ন কক্ষে গলায় গামছা পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করে সাদ।

সাদের বাবা শফিকুল ইসলাম পৌর এলাকার বহরমপুর দাখিল মাদ্রাসার শিক্ষক। তাদের গ্রামের বাড়ি চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর থানা এলাকার চঁন্দ্রনারায়পুর গ্রামে। থানা ভবনের পেছনের জনৈক সেলিমের বাড়িতে ভাড়া থাকতেন তারা।

পুলিশ  ও স্থানীয়রা জানায়, বুধবার দুপুরে বাবার সাথে স্যান্ডেল কিনতে বাজারে যায় সাদ। স্যান্ডেল কিনে বাড়িতে এলেও সেই স্যান্ডেল পছন্দ না হওয়ায় পুণরায় তাকে বাজারে নিয়ে যাওয়ার জন্য বাবার কাছে জোরাজরি করতে থাকে। এক পর্যায়ে বাবা শফিকুল আলম ছেলে সাদকে মারধর করে। পরে বাড়ির সকলের অগোচরে ঘরে ঢুকে গামছা পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করে সাদ।

প্রতিবেশিরা জানালা দিয়ে সাদের ঝুলন্ত দেহ দেখতে পেয়ে চিৎকার শুরু করলে সাদের মা ও বাবা দৌড়ে গিয়ে দরজা ভেঙে ঝুলতে থাকা সাদকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে যায়। সেখানকার জরুরী বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক সাদকে মৃত ঘোষণা করে।

এদিকে, শিশু সাদের মরদেহ নিয়ে পরিবারের লোকজন চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর থানার চঁন্দ্রনারায়নপুর গ্রামে যেতে চাইলেও তাতে বাধা দেন থানা পুলিশ। পরবর্তীতে জেলা প্রশাসকের কাছ থেকে অনুমতিপত্র নিয়ে সন্ধ্যা ৭ টার দিকে সাদের মরদেহ চাঁপাইনবাবগঞ্জ নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানেই পারিবারিক কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়।

থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রুহুল আলম জানান, পরিবারের পক্ষ থেকে কোন অভিযোগ না থাকায় শিশু সাদের মরদেহ ময়না তদন্ত ছাড়াই দাফনের অনুমতি দেয়া হয়েছে। এছাড়া মরদেহ অন্য জেলায় নেয়ার ক্ষেত্রে জেলা প্রশাসক মহোদয়ের অনুমতিও নেয়া হয়েছে। তবে থানায় অপমৃত্যু আইনে একটি মামলা রুজ্জু করা হয়েছে।