আগস্ট ২৩, ২০১৭ ৩:৫২ অপরাহ্ণ

Home / slide / বিআরটিএ’র নিয়মে চলতে নারাজ উবার

বিআরটিএ’র নিয়মে চলতে নারাজ উবার

সাহেব-বাজার ডেস্ক : বিআরটিএ’র নিয়ম নিয়ে আপত্তি তুলেছেন স্মার্টফোন অ্যাপভিত্তিক ট্যাক্সি ও মোটরবাইক সেবাদাতারা। প্রচলিত পরিবহন সেবার মতো নয় উল্লেখ করে স্মার্টফোন অ্যাপের এসব সেবাদাতারা জানান, এটি একটি ডিজিটাল সেবা, ট্রান্সপোর্ট কোম্পানি নয়। যা সবার জন্য উন্মুক্ত।

অপরদিকে বিআরটিএ বলছে, অ্যাপস নিয়ে তাদের কোনো ‘এলার্জি’ নেই। বাংলাদেশের রাস্তার যেকোনো গাড়ি চলুক সেটি বিআরটিএ’র অধীনে এবং এর দায়দায়িত্ব বিআরটিএ’র ওপর বর্তায়।

উবারের মতো মোটরসাইকেলে শেয়ারিং পদ্ধতির অ্যাপস স্যাম (শেয়ার এ মোটরবাইক)-কর্তৃপক্ষ বলছে, অ্যাপসটি বোঝানোর জন্য তারা বিআরটিএ’র কাছে যাবে। এটা কোনো ট্যাক্সি সার্ভিস বা ট্রান্সপোর্ট কোম্পানি নয় যে কিছু মোটরবাইক কিনে নামিয়ে দেওয়া হলো। এটি শুধু মোটরসাইকেল চালকদের মোবাইলে একটি অ্যাপস চালু করে দেওয়া যাতে তারা আরেকজন আরোহীকে গন্তব্যে নিয়ে যেতে পারেন।

আর উবারের অ্যাপস অনুযায়ী, এটি ব্যবহার করেও আশেপাশের ট্যাক্সি ডেকে এনে কোথাও যাওয়া যায়।

এ বিষয়ে যোগাযোগ কর হলে বিআরটিএর পরিচালক (ইঞ্জিনিয়ারিং) নুরুল ইসলাম জানান, প্রযুক্তি নির্ভর এসব সেবাকে তারা সহায়তা দিতে প্রস্তুত। কিন্তু এখনও কেউ আসেনি।

তিনি জানান, একটি প্রাইভেট গাড়িতে যাত্রী উঠিয়ে দেওয়ার পর ওই গাড়ির চালক যাত্রীর সঙ্গে আচরণ সঠিক করলো কিনা তার দায়িত্ব কে বহন করবে। যেহেতু এখন এসব সেবাদাতারা বুঝতে পেরেছেন কর্তৃপক্ষ কে, এজন্য তারা আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারে।

স্মার্টফোনের মাধ্যমে এসব সেবাদাতারা যেহেতু ভাড়ার একটা অংশ পান এবং যে গাড়ি দিয়ে এ সেবা দেওয়া হবে সেটি প্রাইভেট। ফলে তাদেরকে বিআরটিএ’র নিয়ম অনুসরণ করতে হবে। কারণ প্রাইভেট রেজিস্ট্রেশন ক্যাটাগরির কোনো গাড়ি ভাড়ায় চলতে পারবে না বলে আইনে আছে- বলেন নুরুল ইসলাম।

Print Friendly, PDF & Email

Check Also

নারায়ণগঞ্জের সাত খুন: নুর হোসেনসহ ১৫ জনের মৃত্যুদণ্ড

সাহেব-বাজার ডেস্ক : বহুল আলোচিত নারায়ণগঞ্জের সাত খুন মামলার ডেথ রেফারেন্স ও আসামিদের আপিলের রায়ে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *