Ad Space

তাৎক্ষণিক

  • ‘আপত্তিকর’ কাজে বাধা দেয়ায় প্রহরীকে মারধর– বিস্তারিত....
  • বামশক্তি কনসোলিটেড হয়ে দাঁড়াতে না পারলে ফিল ইন দ্য ব্লাংক করে ফেলবে ধর্মীয় শক্তি : আবুল বারকাত– বিস্তারিত....
  • মধ্যম আয়ের দেশ গড়তে হলে ভ্যাটের বিকল্প নেই : ভূমিমন্ত্রী– বিস্তারিত....
  • নাটোরে নির্মাণের ৯ মাসেই ভেঙে পড়েছে কালভার্ট– বিস্তারিত....
  • নাটোরে ইয়াবাসহ চার যুবক আটক– বিস্তারিত....

ত্রুটি দেখা দেওয়ায় প্রধানমন্ত্রীকে বহনকারী ফ্লাইটের জরুরি অবতরণ

নভেম্বর ২৭, ২০১৬

সাহেব-বাজার ডেস্ক : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বহনকারী বিশেষ ফ্লাইটটিতে যান্ত্রিক ত্রুটি দেখা দেওয়ায় তুর্কমেনিস্তানে জরুরি অবতরণ করেছে। তাঁকে বহন করার জন্য বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বিশেষ ফ্লাইটটি এখন বুদাপেস্টের উদ্দেশে রওয়ানা দিয়েছে।

এর আগে পানি সম্মেলনে যোগ দিতে হাঙ্গেরির উদ্দেশে রবিবার (২৭ নভেম্বর) সকালে ভিভিআইপি ফ্লাইটটি প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে ঢাকা ছেড়ে যায়। এটি হবে সে দেশে প্রধানমন্ত্রীর প্রথম রাষ্ট্রীয় সফর।

বিমান এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক মুসাদ্দিক আহমেদের সঙ্গে যোগাযোগ করে বিষয়টি জানতে চাইলে তিনি জানান, ‘বোয়িং ৭৭৭’ এয়ারক্রাফটি বর্তমানে তুর্কমেনিস্তানে ‘অনগ্রাউন্ড’ রয়েছে।

বাসস এর সংবাদে বলা হয়েছে, বুদাপেস্টে সে দেশের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় বৈঠকের পাশাপাশি তার এই সফরে দুই দেশের সরকারি-বেসরকারি পর্যায়ে চারটি সমঝোতা স্মারকে সই হওয়ার কথা রয়েছে।

জাতিসংঘ ও বিশ্বব্যাংকের যৌথ উদ্যোগে গঠিত পানিবিষয়ক উচ্চপর্যায়ের প্যানেলের সদস্য শেখ হাসিনা। এ প্যানেলের অন্য সদস্যরা হলেন হাঙ্গেরি, মেক্সিকো, দক্ষিণ আফ্রিকা, তাজিকিস্তান, মরিশাস, সেনেগাল ও পেরুর প্রেসিডেন্ট এবং অস্ট্রেলিয়া, নেদারল্যান্ডস ও জর্ডানের প্রধানমন্ত্রী।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ এইচ মাহমুদ আলী, স্থানীয় সরকারমন্ত্রী খন্দকার মোশাররফ হোসেন, পানিসম্পদমন্ত্রী আনিসুল ইসলাম মাহমুদ এবং একটি ব্যবসায়ী প্রতিনিধিদল প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে রয়েছেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাহমুদ আলী জানান, দুদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মধ্যে আলোচনা, পানি ব্যবস্থাপনাসংক্রান্ত সহযোগী ও কৃষি বিষয়ে একাধিক সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হবে। তিনি আরো বলেন, এফবিসিসিআই ও হাঙ্গেরিয়ান চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির মধ্যেও একটি এমওইউ স্বাক্ষরিত হবে।

রবিবার হাঙ্গেরির স্থানীয় সময় দুপুরে বুদাপেস্ট পৌঁছাবেন শেখ হাসিনা। পরদিন সকালে পানি সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন।

বিকেলে বুদাপেস্টে দেশটির প্রেসিডেন্ট জানোস এডারের সঙ্গে সান্দর প্রেসিডেন্সিয়াল প্রাসাদে শেখ হাসিনার বৈঠক হবে। রাতে হাঙ্গেরির প্রেসিডেন্টের দেওয়া সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী। তিনি হাঙ্গেরির প্রেসিডেন্ট ও অন্য অতিথিদের সঙ্গে সাসটেইনেবল ওয়াটার সল্যুশন এক্সপো পরিদর্শন করবেন।

মঙ্গলবার সকালে হাঙ্গেরির শহীদদের স্মৃতির প্রতি হিরোজ স্কয়ারে শ্রদ্ধা নিবেদন করবেন শেখ হাসিনা। এরপর হাঙ্গেরীর প্রধানমন্ত্রী ভিক্টর অরবানের সঙ্গে কসুদ স্কয়ারে দ্বিপক্ষীয় বৈঠকে মিলিত হবেন। এরপর বেশ কয়েকটি চুক্তি স্বাক্ষর হবে। বৈঠক শেষে দুই প্রধানমন্ত্রী যৌথ সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখবেন।

বিকেলে শেখ হাসিনা এবং হাঙ্গেরির প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশ-হাঙ্গেরি বিজনেস ইকোনমিক ফোরামের উদ্বোধন করবেন। প্রধানমন্ত্রী বুধবার সকালে দেশের উদ্দেশে বুদাপেস্ট ত্যাগ করবেন এবং বেলা সাড়ে ১১টায় ঢাকা পৌঁছাবেন বলে আশা করা হচ্ছে।