Ad Space

তাৎক্ষণিক

  • রাসিকের বর্ধিত ট্যাক্স বাতিলের দাবিতে হরতালের ডাক– বিস্তারিত....
  • রোহিঙ্গা সংকটের জন্য আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে দুষলেন সু চি– বিস্তারিত....
  • লক্ষ্মীপুরে ভাটা শ্রমিকের লাশ উদ্ধার– বিস্তারিত....
  • ব্রিটিশ পদার্থবিজ্ঞানী স্টিফেন হকিং হাসপাতালে– বিস্তারিত....
  • ফেসবুক ও টুইটারে শাহরুখের পারিবারিক ছবি– বিস্তারিত....

নাটোরের দুই স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের ঘটনায় তিন জনের বিরুদ্ধে মামলা

নভেম্বর ২৪, ২০১৬

নাটোর প্রতিনিধি : নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলার চান্দাই গ্রামে কবিরাজি চিকিৎসার নামে স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণ ও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেওয়ার  ঘটনায় বড়াইগ্রাম থানায় কবিরাজ সহ ৩ জনকে অভিযুক্ত করে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। নির্যাতিত এক স্কুল ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে বৃহস্পতিবার রাতে এই মামলা দায়ের করেন। মামলায় অভিযুক্তরা হলেন কবিরাজ আল আমিন ওরফে আকিল কবিরাজ, আকিলের সহযোগী তাছলিমা খাতুন এবং ভিডিও গ্রাফার রঞ্জু। অভিযুক্তরা সকলেই বড়াইগ্রাম উপজেলার চান্দাই গ্রামের বাসিন্দা।

মামলার এজাহারে বলা হয়, প্রায় এক বছর আগে চান্দাই উচ্চ বিদ্যালয়ের ৯ম শ্রেণীতে পড়ুয়া এক ছাত্রীকে কবিরাজি মাধ্যমে তার প্রেমিকের সঙ্গে মিলিয়ে দেয়ার প্রলোভন দেয় আকিল কবিরাজ। পরে তার কথামত রাত ১১টার দিকে মেয়েটি তার বাড়িতে আসলে কবিরাজির ভান করে এক পর্যায়ে তাকে ধর্ষণ করে।

এ সময় স্থানীয় ডিস লাইন ব্যবসায়ী রঞ্জু ও আকলিমার সহায়তায় ধর্ষণের ভিডিও চিত্র ধারণ করে রাখে। পরে এ ভিডিও ছড়িয়ে দেয়ার ভয় দেখিয়ে গত এক বছর যাবৎ নিয়মিত মেয়েটিকে ধর্ষণ  করে আসছিল সে। কিছুদিন আগে বিকাল বেলা অপর একটি মেয়ে (১৩) তাদের অনৈতিক দৃশ্য দেখে ফেলে। পরের দিন কৌশলে মেয়েটিকে আকিল কবিরাজ তার বাড়িতে ডেকে নিয়ে তাকেও ধর্ষণ করে ভিডিও করে রাখে। সম্প্রতি মেয়ে দুটি তার আহ্বানে সাড়া না দিলে কবিরাজ ধর্ষণের ভিডিও ফুটেজ ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেয়। এ ঘটনায় এলাকাবাসি ক্ষুদ্ধ হয়ে অভিযুক্তদের বাড়ি ঘরে হামলা চালায়। এরপর থেকে পলাতক রয়েছে অভিযুক্তরা।