Ad Space

তাৎক্ষণিক

জেনে নিন ইন্টারনেটে প্রতি সেকেন্ডেই যা ঘটছে!

নভেম্বর ২২, ২০১৬

সাহেব-বাজার ডেস্ক : আমরা সকলেই কম বেশি ইন্টারনেটের সাথে পরিচিত। এটি ব্যাতিত আমাদের জীবনের একটি দিনও কল্পনা করা যায় না। আজ থেকে ৩০ বছর পূর্বেই আমরা ইন্টারনেটের সাথে পরিচিত ছিলাম না। এছাড়াও প্রায় ১০-১২ বছর পূর্ব পর্যন্ত ফেসবুক, টুইটার, ইউটিউব, ইনস্টাগ্রাম, স্কাইপে ইত্যাদির মত সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের সাথেও পরিচিত ছিলাম না।

পূর্বে ইমেইলের পরিবর্তে ডাক মারফর চিঠিপত্র আদান-প্রদান হত। হাসি-কান্না, আবেগ-অনুভূতি যাই লেখা হত না কেন তা অপর প্রান্তে পৌঁছাতে এক সপ্তাহ থেকে কয়েক সপ্তাহ পর্যন্ত লেগে যেত। অপেক্ষার যেন শেষই হত না! পূর্বে অলিতে-গলিতে লোকজন বসে গল্প-গুজব করত। আজকাল গল্প হয় সোশ্যাল মিডিয়ায় চ্যাটিংয়ে। চিঠি বা সংবাদ যায় ইমেইলে। কয়েক সেকেন্ডের মধ্যেই পেয়ে যায় প্রাপক!

আপনি জানেন কি ইন্টারনেট এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রতি সেকেন্ডে কি ঘটছে? চলুন জানা যাক সেগুলো:

ইমেইল: সারাবিশ্বে প্রতি সেকেন্ডে প্রায় ২৪,০০,০০০ টি ইমেইল আসা-যাওয়া করছে!

হোয়াট’সঅ্যাপ: এতে প্রতি সেকেন্ডে প্রায় ২,৫০,০০০ টি মেসেজ আসা-যাওয়া করছে।

ইউটিউব: জানলে সত্যিই অবাক হবেন! মাত্র এক সেকেন্ডে ইউটিউবে প্রায় ১,০০,০০০ বার ভিডিও দেখা হয়।

গুগল সার্চ: প্রতি সেকেন্ডে প্রায় ৬০,০০০ এরও অধিকবার গুগল সার্চ হয়।

ফেসবুক: ফেসবুকে লাইক-কমেন্টস হয়তো অনেকের কাছে তেমন কিছু না। কিন্তু অনেকেই আবার লাইক-কমেন্টস এর আশায় থাকেন। জানেন কি প্রতি সেকেন্ডে ফেসবুকে কতটি লাইক পড়ে? জেনে নিন। সংখ্যাটি হচ্ছে ৫০,০০০ এরও অধিক!

টুইটার: প্রতি সেকেন্ডে প্রায় ১০,০০০ টুইট হয়।

ইন্টারনেট ট্রাফিক: প্রতি সেকেন্ডে প্রায় ২৭,০০০ গিগাবাইট ইন্টারনেট ট্রাফিক হয়।

ইনস্টাগ্রাম: প্রতি সেকেন্ডে ইনস্টাগ্রামে প্রায় ২০০০ টি ছবি আপলোড হয়।

টাম্বলার: প্রতি সেকেন্ডে ১৮০০ এরও অধিক পোস্ট হয়।

স্কাইপে কল: প্রতি সেকেন্ডে ১৯০০ স্কাইপে কল করা হচ্ছে।

আরো কিছু তথ্য :

বিশ্বে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সংখ্যা: বিশ্বের ৭৩০ কোটি জনসংখ্যার প্রায় ৪০ শতাংশই ইন্টারনেট ব্যবহার করছে! মোট হিসেবে তা ৩০০ কোটি হবে।

বাংলাদেশে ব্যবহারকারীর সংখ্যা: আমাদের দেশে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সংখ্যা প্রতিনিয়তই বাড়ছে। গত বছরের অক্টোবর মাসের সরকারী পরিসংখ্যান অনুযায়ী দেশে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সংখ্যা মোট জনসংখ্যার ৩২% বা ৫ কোটি ২২ লাখ। তবে জাতিসংঘের অধীন প্রতিষ্ঠান আন্তর্জাতিক টেলিযোগাযোগ ইউনিয়ন (আইটিইউ) ও ইউনেস্কো প্রকাশিত “দ্য স্টেট অফ ব্রডব্যান্ড ২০১৫” শীর্ষক প্রতিবেদনে বলা হয় সংখ্যাটি হবে ৯.৬ শতাংশ বা প্রায় দেড় কোটি।

ইন্টারনেটে ওয়েবসাইটের সংখ্যা: ১৯৯১ সালের প্রথমদিক পর্যন্ত কোন ওয়েবসাইট ছিল না। কিন্তু বর্তমানে ১০০ কোটি ওয়েবসাইট রেজিস্ট্রেশন হয়েছে। সংখ্যাটি বেড়েই চলছে।