Ad Space

তাৎক্ষণিক

  • ‘আপত্তিকর’ কাজে বাধা দেয়ায় প্রহরীকে মারধর– বিস্তারিত....
  • বামশক্তি কনসোলিটেড হয়ে দাঁড়াতে না পারলে ফিল ইন দ্য ব্লাংক করে ফেলবে ধর্মীয় শক্তি : আবুল বারকাত– বিস্তারিত....
  • মধ্যম আয়ের দেশ গড়তে হলে ভ্যাটের বিকল্প নেই : ভূমিমন্ত্রী– বিস্তারিত....
  • নাটোরে নির্মাণের ৯ মাসেই ভেঙে পড়েছে কালভার্ট– বিস্তারিত....
  • নাটোরে ইয়াবাসহ চার যুবক আটক– বিস্তারিত....

রাবিতে ছাত্রলীগের পদপ্রত্যাশীর বিরুদ্ধে অপপ্রচারের অভিযোগ

নভেম্বর ২১, ২০১৬

রাবি প্রতিবেদক : বাংলাদেশ ছাত্রলীগের দ্বিতীয় বৃহত্তম ইউনিট রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় (রাবি) শাখার সম্মেলনকে ঘিরে জমে উঠেছে পদপ্রত্যাশীদের প্রচারণা। সম্মেলনের তারিখ ঘোষণার পর থেকেই ক্যাম্পাসে নিয়মিত শোডাউন এবং মহানগর নেতাদের সঙ্গে লবিংয়ে ব্যস্ত সময় কাটছে তাদের। তবে সম্মেলনের দিন ঘনিয়ে আসার সঙ্গে সঙ্গে সম্ভাব্য প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালাচ্ছে পদপ্রত্যাশীদের একটি অংশ। এই অপপ্রচারের শিকার হয়েছেন আসন্ন সম্মেলনে রাবি ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক পদপ্রত্যাশী সাকিবুল হাসান বাকি এবং শিবিরের হামলায় আহত রাবি ছাত্রলীগ নেতা আবদুল্লাহ আল-মাসুদ।

জানা যায়, সোমবার বাংলাদেশমেইল২৪ডটকম নামের একটি অনলাইন নিউজ পোর্টালে ‘রহস্য উদঘাটন : তবে কী বাকীই পা কেটেছিল মাসুদের’ শিরোনামে একটি সংবাদ প্রকাশ করা হয়। ‘ডেইলি নিউজ অব রাজশাহী ইউনিভার্সিটি এন্ড রুয়েট’ নামের একটি ভুয়া ফেসবুক পেইজ থেকে নিউজটি শেয়ার করা হলে ক্যাম্পাসে আলোড়ন সৃষ্টি হয়। সোমবার বিকেলে প্রকাশিত সংবাদকে ‘মিথ্যা ও বিভ্রান্তিকর’ উল্লেখ করে এর প্রতিবাদ করেছেন শিবিরের হামলায় পঙ্গুত্ব বরণ করা রাবি ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক আবদুল্লাহ আল-মাসুদ। গত ১৮ নভেম্বর রাবি ছাত্রলীগের বর্ধিত সভায় এমন কোন কথা হয়নি বলে নিশ্চিত করেছেন রাবি ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক খালিদ হাসান বিপ্লব।

ওই নিউজ পোর্টালের প্রকাশিত সংবাদে উল্লেখ করা হয়, ‘আসন্ন ৮ ডিসেম্বর রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সন্মেলনকে কেন্দ্র করে বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত সভায় ছাত্রলীগের ভাইস প্রেসিডেন্ট বেহেস্তির ভাই মাসুদ ভারাক্রান্ত মনে সবার সামনে বলেন, ঐ সব বাকী ফাকি চলবেনা, আমার মত অন্য কারো ক্ষতি হোক তা আমি চাই না। এই  অল্প বয়সে আমার মত কোন ছাত্রলীগ কর্মী যেন আর পঙ্গু হয়ে না যায়। এই পঙ্গুত্বের যন্ত্রণা আজ আমি তিলে তিলে অনুভব করছি।’

এর প্রতিবাদ জানিয়ে সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আবদুল্লাহ আল-মাসুদ বলেন, আমাকে জড়িয়ে আমার বন্ধু এবং রাবি ছাত্রলীগের জনপ্রিয় নেতা সাকিবুল হাসান বাকির বিরুদ্ধে মিথ্যা, বানোয়াট ও বিভ্রান্তিকর সংবাদ পরিবেশন করা হয়েছে। আমি এর তীব্র  নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই।

তিনি বলেন, আগামী ৮ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিতব্য রাবি ছাত্রলীগের ২৫তম সম্মেলনকে কেন্দ্র করে আমাকে এবং জনপ্রিয় ছাত্রনেতা বন্ধুবর সাকিবুল হাসান বাকিকে রাজনৈতিকভাবে হেনস্তা করার জন্য একটি কুচক্রী মহল নানাভাবে অপপ্রচার চালাচ্ছে। এই ঘৃণ্য চক্রান্তের অবসানে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় নেতাদের হস্তক্ষেপ কামনা করছি এবং এ বিষয়ে কাউকে বিভ্রান্ত না হতে অনুরোধ করছি।

আবদুল্লাহ আল-মাসুদ বলেন, ১৮ নভেম্বর শুক্রবার রাবি ছাত্রলীগের বর্ধিত সভায় আমি ও আমার ভাই রাবি ছাত্রলীগের সহসভাপতি আয়াতুল্লাহ বেহেস্তি উপস্থিত ছিলাম। সভায় বন্ধুবর সাকিবুল হাসান বাকিকে নিয়ে এ ধরনের কোন মন্তব্য করার প্রশ্নই ওঠে না। প্রকৃতপক্ষে সাকিবুল হাসান বাকি আমার ঘনিষ্ঠ বন্ধুদের একজন। বিশ্ববিদ্যালয়ের মাদার বখ্শ হলে পাশাপাশি কক্ষে আমরা থাকি।

জানা যায়, ২০১৪ সালের ২৯ এপ্রিল সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের জিয়া হলের পাশে শিবিরের অস্ত্রধারী ক্যাডাররা পরিকল্পিতভাবে মাসুদের ওপর হামলা চালিয়ে তাকে কুপিয়ে এবং গুলি করে গুরুতরভাবে জখম করে। শিবির ক্যাডারদের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে তার ডান পা গোড়ালি থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। এছাড়া শিবিরের প্রশিক্ষিত কিলাররা তার বাম পা এবং দুই হাতের রগ কেটে দেয়। দীর্ঘদিন ধরে চিকিৎসা নেয়ার পরেও তাকে পঙ্গুত্ব বরণ করতে হয়েছে।

আবদুল্লাহ আল-মাসুদ বলেন, হামলার ঘটনার পরে চিকিৎসাসহ সার্বিক বিষয়ে আমার প্রাণপ্রিয় সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ আমাকে সবসময় সহযোগিতা করেছে। এই মর্মান্তিক ঘটনার আগে ও পরে বন্ধু সাকিবুল হাসান বাকি সার্বক্ষণিক আমাকে সহযোগিতা করেছে।

এ প্রসঙ্গে রাবি ছাত্রলীগ নেতা সাকিবুল হাসান বাকি বলেন, ক্যাম্পাসে স্বচ্ছ ধারার রাজনীতি করার কারণে দলের সাধারণ কর্মীদের কাছে আমার গ্রহণযোগ্যতা অনেক বেশি। আগামী ৮ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিতব্য রাবি ছাত্রলীগের সম্মেলনে সাধারণ সম্পাদক পদের দৌড়ে অনেকটাই এগিয়ে আছি। তাই প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের কেউ ঈর্শ্বান্বিত হয়ে আমার বিরুদ্ধে অপপ্রচারে নেমেছে।

রাবি ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক খালিদ হাসান বিপ্লব বলেন, ছাত্রলীগের বর্ধিত সভায় সম্মেলনকে কীভাবে সফল করা যায় সেটা নিয়েই আলোচনা হয়েছে। এখানে কোন পদপ্রত্যাশীর নামে কাউকে এরকম কথা বলতে শুনিনি।