Ad Space

তাৎক্ষণিক

  • ‘আপত্তিকর’ কাজে বাধা দেয়ায় প্রহরীকে মারধর– বিস্তারিত....
  • বামশক্তি কনসোলিটেড হয়ে দাঁড়াতে না পারলে ফিল ইন দ্য ব্লাংক করে ফেলবে ধর্মীয় শক্তি : আবুল বারকাত– বিস্তারিত....
  • মধ্যম আয়ের দেশ গড়তে হলে ভ্যাটের বিকল্প নেই : ভূমিমন্ত্রী– বিস্তারিত....
  • নাটোরে নির্মাণের ৯ মাসেই ভেঙে পড়েছে কালভার্ট– বিস্তারিত....
  • নাটোরে ইয়াবাসহ চার যুবক আটক– বিস্তারিত....

জাবিতে ভর্তি পরীক্ষায় জালিয়াতি, আটক ৬

নভেম্বর ২১, ২০১৬

সাহেব-বাজার ডেস্ক : জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের প্রথম বর্ষের স্নাতক সম্মান শ্রেণির ভর্তি পরীক্ষায় জালিয়াতির অভিযোগে এই চক্রের ৬ সদস্যকে আটক করে পুলিশে দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

রবিবার জীববিজ্ঞান অনুষদের (ডি ইউনিট) এর সান্ধ্যকালীন শিফটে পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে জালিয়াতির অভিযোগে এদেরকে আটক করা হয়। পরে রাত আড়াইটা পর্যন্ত তাদেরকে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে পুলিশের হাতে তুলে দেয় প্রশাসন।

আটককৃত জালিয়াতি চক্রের সদস্যরা হলেন মোর্শেদ আলম জামাল, শোয়েব আলম চৌধুরী, মনিরুল ইসলাম, শাহনেওয়াজ আদনান প্রাপ্ত, মাহবুবুর রহমান ও আশিক কবির। এদের মধ্যে মাহবুবুর রহমান ও আশিক কবির ভর্তি পরীক্ষার্থী।

ভর্তি পরীক্ষা দিতে আসা বেশ কিছু ছাত্রছাত্রীকে টাকার বিনিময়ে প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার জন্য কাজ করে আসছিল বলে স্বীকার করে জালিয়াতি চক্রের সদস্য মোর্শেদ আলম জামাল ও শোয়েব আলম চৌধুরী।

এর আগে, বিশ্ববিদ্যায়ের প্রধান নিরাপত্তা কর্মকর্তা সুদীপ্ত শাহীনের নেতৃত্বে ক্যাম্পাসের বিভিন্ন এলাকা থেকে ভর্তি জালিয়াতির সাথে জড়িত সন্দেহে মোট ১৬ জনকে আটক করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

এদের মধ্যে ৭ জনকে বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার থেকে, ৪ জনকে ক্যাফেটেরিয়া, ৫ জনকে ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদ এবং আরেকজনকে বিশ্ববিদ্যালয়ের মীর মশাররফ হোসেন হল থেকে আটক করা হয়। তবে জালিয়াতির সাথে জড়িত থাকার অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় বাকি ১২ জনকে মুচলেকা দিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়।

এদিকে, ডি ইউনিটের পরীক্ষায় বন্ধুকে সাহয্য করতে শিফট পরিবর্তন করে পরীক্ষা দিতে গিয়ে ধরা পড়েছে সাগর নামে গাজীপুরের শহীদ তাজউদ্দিন মেডিকেল কলেজের প্রথম বর্ষের এক শিক্ষার্থী। সকালে প্রথম শিফটের পরীক্ষার সময় পদার্থ বিজ্ঞান গ্যালারি থেকে তাকে হাতে নাতে ধরা হয়।

বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন সূত্রে জানা যায়, রবিবার গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দিন মেডিকেল কলেজের ১ম বর্ষের শিক্ষার্থী সাগরের পরীক্ষা ৪র্থ শিফটে থাকলেও সে তার বন্ধু মেহেদী হাসানকে সাহায্য করার জন্য ১ম শিফটে পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করে।

পরে শিক্ষার্থীদের উপস্থিতির খাতায় স্বাক্ষর করার সময় হলের পরিদর্শক তাকে হাতে-নাতে ধরে ফেলে এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরিয়াল বডির কাছে হস্তান্তর করে। পরে প্রক্টরিয়াল বডি তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে মুচলেকা নিয়ে ছেড়ে দেয়।

প্রসঙ্গত, গত ১৯ নভেম্বর থেকে শুরু হয়েছে জাবির প্রথম বর্ষ স্নতক (সম্মান) শ্রেণির ভর্তি পরীক্ষা। চলবে আগামী ২৩ নভেম্বর পর্যন্ত। আজ সোমবার অনুষ্ঠিত হচ্ছে বি (সমাজবিজ্ঞান) এবং এইচ (আইআইটি) ইউনিটের পরীক্ষা।