সেপ্টেম্বর ২৬, ২০১৭ ১১:২৩ পূর্বাহ্ণ

Home / slide / ‘মেয়ের’ বিয়েতে কী উপহার দিচ্ছেন আমির?
'মেয়ের' বিয়েতে কী উপহার দিচ্ছেন আমির?
'মেয়ের' বিয়েতে কী উপহার দিচ্ছেন আমির?

‘মেয়ের’ বিয়েতে কী উপহার দিচ্ছেন আমির?

সাহেব-বাজার ডেস্ক : এই ডিসেম্বরে মুক্তি পাচ্ছে আমির খানের বহুল আলোচিত ছবি ‘দঙ্গল’। কুস্তিগীর মহাবীর সিং ফোগাটের জীবন অবলম্বনে নির্মিত হয়েছে ছবিটি। ছবিটি করতে গিয়ে আমিরকে ওজন বাড়িয়ে প্রায় দ্বিগুণ হতে হয়েছে। দুই বছর ধরে এর কাজ করতে গিয়ে মহাবীরের কন্যা গীতা ও ববিতার সঙ্গে হৃদ্যতা গড়ে উঠেছে বলিউডের এই সুপারস্টারের। কারণ পর্দায় তাদের বাবার ভূমিকায় দেখা যাবে তাকে। আমিরও যেন তাদেরকে নিজের মেয়ে মনে করতে শুরু করেছেন।
সামনে গীতা ফোগাটের বিয়ে। হরিয়ানায় এ অনুষ্ঠানে অংশ নিতে তিন দিনের জন্য সব কাজ থেকে বিরতি নিচ্ছেন আমির। শুধু তা-ই নয়, তাকে বিয়ের শাড়িও কিনে দিচ্ছেন তিনি।
উপহার দেওয়ার খবরটির সত্যতা নিশ্চিত করে আমির খানের মুখপাত্র বলেছেন, ‘বিয়ের শাড়ি সাধারণত বাবা মেয়েকে দেন। গীতার জন্য একই কাজ করতে চান আমির। বিয়ের আগের দিন শাড়িটি গীতার হাতে তুলে দেবেন তিনি।’
শোনা যাচ্ছে, মহাবীরের পরিবার ও গীতার হবু বরের জন্য উপহার কেনার বিষয়টি ব্যক্তিগতভাবে দেখভাল করছেন আমির। পরিবারের সদস্য হিসেবেই এই আনন্দে শামিল হতে চান তিনি। এখন থেকেই মহাবীর সিং ফোগাটের সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ করে বিয়ের প্রস্তুতি ও সব ঠিকঠাক চলছে কি-না সে ব্যাপারে খোঁজখবর নিচ্ছেন।
হরিয়ানার বালালি গ্রাম থেকে ১৫ কিলোমিটার দূরে চরখি দাদরিতে আগামী ২০ নভেম্বর হিন্দু রীতি মেনে কুস্তিগীর পবন কুমারের সঙ্গে গীতার বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন হবে। এখানে আমির থাকবেন কনেপক্ষ। বিয়েতে নিমন্ত্রণ পেয়েছেন ‘দঙ্গল’ ছবির পরিচালক নিতেশ তিওয়ারিও।
কয়েক বছর আগে ‘থ্রি ইডিয়টস’ছবির প্রচারণার সময় বারানসিতে অটোচালকের পুত্রের বিয়েতে অংশ নিয়েছিলেন আমির। তবে মহাবীর কন্যা গীতার বিয়ের মতো এতোটা আগ্রহ তার মধ্যে দেখা যায়নি আগে।
বাবার কাছ থেকে প্রশিক্ষণ নেওয়ার পর গীতা ও ববিতা কমনওয়েলথ গেমসে সোনা জিতে ব্যাপক আলোচিত হন।

Print Friendly, PDF & Email

Check Also

জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে সাংবাদিক ইমরান

তানোর প্রতিনিধি : মানসিক ভারসাম্যহীন ছোট ভাইয়ের হাতুড়ির আঘাতে এখন মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছেন রাজশাহীর …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *