আগস্ট ১৯, ২০১৭ ৬:০৪ পূর্বাহ্ণ
Home / রাজশাহীর সংবাদ / নাটোরে অতিথি পাখি শিকার করে পিকনিক

নাটোরে অতিথি পাখি শিকার করে পিকনিক

নাটোর প্রতিনিধি : নাটোরের বাগাতিপাড়ায় আইন অমান্য করে অতিথি পাখি শিকার করে পিকনিক করেছে ইউনিয়ন যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। বুধবার রাত ৯টার দিকে উপজেলার দয়ারামপুর ইউনিয়নের সোনাপুর বাজারে যুবলীগ সভাপতি খালেকুজ্জামানের কার্যালয়ে এই পিকনিকের আয়োজন করা হয়।

স্থানীয়রা জানান, প্রতিবারের ন্যায় দয়ারামপুর ইউনিয়ন যুবলীগ সভাপতি খালেকুজ্জামান, সাধারণ সম্পাদক আবু হানিফ ও ছাত্রলীগ সভাপতি জিল্লুর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক অবদুর রশিদের উদ্যোগে দেশের প্রচলিত আইন অমান্য করে বিভিন্ন এলাকায় বন্ধুক দিয়ে বেশ কিছু অতিথি পাখি শিকার করে তাদের সমর্থকরা। পরে রাতে অতিথি পাখির মাংস দিয়ে খালেকুজ্জামানের দলীয় কার্যালয়ে ভুঁড়িভোজের আয়োজন করা হয়। শুধু তাই নয় ইউনিয়ন ছাত্রলীগ সম্পাদক আবদুর রশিদের ফেসবুক পেজে ‘প্রতিবছরের ন্যায় এবারও পালিত হল পাখি শিকার করে পিকনিক’ ক্যাপসন লিখে পিকনিকের খিচুরী ও পাখির মাংস ভোজনের বিভিন্ন ছবি আপলোড করেন।

বিষয়টি নিয়ে দয়ারামপুর ইউনিয়ন যুবলীগ সভাপতি খালেকুজ্জামানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি পিকনিকের কথা শিকার করেন। তবে পাখি শিকারের বিষয়টি অস্বীকার করে বলেন, ছেলেরা মজা করে পাখির কথা উল্লেখ করেছে। খাবারের প্লেটে রান্না করা পাখির ছবি দেখা যাচ্ছে- এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি জানান, ওইটা অতিথি পাখি নয়, কোয়েল পাখি।

পাখি হত্যা করে পিকনিক করা অত্যান্ত গর্হিত কাজ উল্লেখ করে নাটোর জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি রাকিবুল হাসান জেমস জানান, বিষয় তদন্ত করে সাংগঠনিকভাবে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ বিষয়ে বাগাতিপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফরহাদ আহমেদের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, বন্যপ্রাণী শিকার এমনিতেই দণ্ডনীয় অপরাধ। তারপরেও বন্যপ্রাণী হত্যা ও পিকনিক করে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে প্রকাশ করে বড় ধরণের অপরাধ করা হয়েছে। বিষয়টি গুরুতের¡ সাথে অনুসন্ধান করে বন্যপ্রাণী আইনে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Print Friendly, PDF & Email

Check Also

বন্ধ হয়নি ভাঙন, ক্ষতিগ্রস্তরা এখনো পাননি ত্রাণ

এমএম মামুন, মোহনপুর : ছয়দিনেও রাজশাহীর মোহনপুর উপজেলার শিবনদীর বেড়ী বাঁধ ভাঙন বন্ধ করতে পারেননি …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *