Ad Space

তাৎক্ষণিক

  • ‘আপত্তিকর’ কাজে বাধা দেয়ায় প্রহরীকে মারধর– বিস্তারিত....
  • বামশক্তি কনসোলিটেড হয়ে দাঁড়াতে না পারলে ফিল ইন দ্য ব্লাংক করে ফেলবে ধর্মীয় শক্তি : আবুল বারকাত– বিস্তারিত....
  • মধ্যম আয়ের দেশ গড়তে হলে ভ্যাটের বিকল্প নেই : ভূমিমন্ত্রী– বিস্তারিত....
  • নাটোরে নির্মাণের ৯ মাসেই ভেঙে পড়েছে কালভার্ট– বিস্তারিত....
  • নাটোরে ইয়াবাসহ চার যুবক আটক– বিস্তারিত....

গারো তরুণী ধর্ষণ মামলার প্রধান আসামি রুবেল গ্রেফতার

নভেম্বর ১২, ২০১৬

সাহেব-বাজার ডেস্ক : রাজধানীর বাড্ডায় গারো তরুণী ধর্ষণ মামলার প্রধান আসামি রুবেলকে বিমানবন্দর এলাকা থেকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। শনিবার সকালে তাকে গ্রেফতার করা হয়। সর্বশেষ বাড্ডা থানায় তার বিরুদ্ধে ডাকাতির মামলা হয়। এ থানায় তার বিরুদ্ধে মোট ছয়টি মামলা আছে। এছাড়া রাজধানীর বিভিন্ন থানায় আছে আরও ১৪টি মামলা।

অভিযুক্ত আসামি রুবেলকে গ্রেফতারে আদিবাসী সম্প্রদায় সাতদিনের আল্টিমেটাম দেয়। তারা স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ঘেরাও করবে বলে ঘোষণা দেয়। পরে র‌্যাবের গোয়েন্দারা রুবেলকে গ্রেফতার করার প্রযুক্তির জাল তৈরি করে। এক পর্যায় সে বিদেশ পালানোর চেষ্টা করলে র‌্যাব তার বিদেশ গমন ঠেকাতে সক্ষম হয়। বিমানবন্দর থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

র‌্যাব সদর দফতর সূত্র জানায়, গারো তরুণী (১৮) ধর্ষণের আগে আরও দুটি এমন ঘটনায় জড়িত ছিল রুবেল। দুবছর আগে পোশাক কারখানার দুই কর্মীকে সে একইভাবে ধর্ষণ করেছিল। তবে ওইসব ঘটনায় তার বিরুদ্ধে থানায় কোনো অভিযোগ হয়নি।

পুলিশের গুলশান বিভাগের এসি রফিকুল ইসলাম জানান, গারো তরুণী ধর্ষণের ঘটনায় গত শুক্রবার বাড্ডা থানায় মামলা করা হয়। এর আগে এ ঘটনায় পুলিশ ধর্ষকের সহযোগী সন্দেহে সালাহউদ্দিন নামে এক যুবককে গ্রেফতার করে। তিনি বলেন, খিলক্ষেতের একটি বিউটি পার্লারে কাজ করেন তরুণী। বাড্ডার এক যুবকের সাথে তার বাগদান সম্পন্ন হয়েছে।

গত ২৫ অক্টোবর তিনি তার হবু স্বামীর সাথে দেখা করতে উত্তর বাড্ডার পুরাতন থানা রোডের বাড়িতে যান। বিকাল ৪টার দিকে সেখান থেকে বের হওয়ার পরপরই স্থানীয় সাত/আটজন যুবক তাদের ঘিরে ফেলে এবং মারধর করে।

তার হবু স্বামীকে বেধড়ক পিটিয়ে তার টাকা-মোবাইল ফোন কেড়ে নেয়া হয়। তরুণীকে নিয়ে যাওয়া হয় স্থানীয় একটি পরিত্যক্ত বাড়িতে। সেখানে রুবেল তাকে ধর্ষণ করে। এ ঘটনায় মামলায় রুবেল ও সালাহউদ্দিন ছাড়া অজ্ঞাতপরিচয় আরও তিন-চারজনকে আসামি করা হয়েছে।

র‌্যাব সূত্র জানায়, গত বছরের ২১ মে রাজধানীর কুড়িল বিশ্বরোড এলাকায় মাইক্রোবাসে তুলে নিয়ে এক গারো তরুণীকে ধর্ষণ করা হয়। এ ঘটনায় র‌্যাব দুই অভিযুক্তকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়।

সম্প্রতি সারাদেশে ধর্ষণের ঘটনায় বেড়ে যাওয়ায় র‌্যাবকে এ বিষয়ে কঠোর নির্দেশনা দেয় সরকার। চলতি বছরের পহেলা আগস্ট থেকে ২ নভেম্বর পর্যন্ত ৩৪টি ঘটনা ঘটে। র‌্যাবের একজন দায়িত্বশীল কর্মকর্তা বলেন, এ অপরাধ প্রতিরোধে তারা কঠোর ব্যবস্থা নিতে যাচ্ছেন।