ডিসেম্বর ১১, ২০১৭ ৯:০৩ অপরাহ্ণ

Home / slide / তামিমদের টার্গেট ১২৮

তামিমদের টার্গেট ১২৮

সাহেব-বাজার ডেস্ক : টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের খুলনা নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে তুলেছে ১২৭ রান। দ্বিতীয় জয় পেতে এই স্কোর টপকে যেতে হবে তামিমের চিটাগংকে।

বিপিএলের চলমান আসরের অষ্টম ম্যাচে মাঠের লড়াইয়ে নামে তামিম ইকবালের চিটাগং ভাইকিংস এবং মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের খুলনা টাইটানস। মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে দুপুর দুইটায় মাঠে নামে দ্বিতীয় জয়ের টার্গেটে থাকা চিটাগং-খুলনা। টস জিতে আগে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন চিটাগং দলপতি তামিম ইকবাল।

খুলনার হয়ে ব্যাটিং শুরু করেন রিকি ওয়েসেলস এবং হাসানুজ্জামান। দুই ওপেনার বেশ ভালোই শুরু করেন। ১৯ বল স্কোরবোর্ডে ৩৪ রান যোগ করেন তারা। ইনিংসের চতুর্থ ওভারের প্রথম বলে মোহাম্মদ নবীকে উঠিয়ে মারতে গিয়ে জহুরুল ইসলামের তালবুন্দি হন হাসান (৮)। একই ওভারে নবী ফিরিয়ে নেন নতুন ব্যাটসম্যান শুভাগত হোমকে (৩)। দলীয় ৩৮ রানের মাথায় শুভাশিষ রায়ের তালুবন্দি হন শুভাগত।

ভালো শুরু করেও আবদুর রাজ্জাকের দারুণ এক ঘূর্ণিতে বোল্ড হন রিকি ওয়েসেলস। ব্যক্তিগত ২৮ রানে সাজঘরে ফেরেন তিনি। ইনিংসের ষষ্ঠ ওভারে বোল্ড হওয়ার আগে ১৭ বল মোকাবেলা করে তিনি চারটি বাউন্ডারি হাঁকান। দলীয় ৪২ রানের মাথায় তৃতীয় উইকেটের পতন ঘটে খুলনার।

এরপর ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা করে খুলনা। দলপতি মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের দিকে তাকিয়ে ছিল দল। তবে, ইনিংসের নবম ওভারে তাসকিনের লাফিয়ে উঠা বলে শট নেন মাহমুদুল্লাহ। তামিমের দুর্দান্ত ক্যাচে ফিরতে হয় ৬ রান করা মাহমুদুল্লাহ রিয়াদকে। দলীয় ৫২ রানে খুলনার চার উইকেটের পতন হয়।
অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান অলোক কাপালির ব্যাটে আবারও স্বপ্ন দেখে খুলনা। তবে নবীর তৃতীয় শিকার হয়ে ২৩ রানে ফেরেন তিনি। ৩৫ বলে একটি চারের সাহায্যে নিজের ইনিংসটি সাজান কাপালি।

১৭.৩ ওভারে দলীয় শতক পূর্ণ হয় খুলনার। মোহাম্মদ নবীর বলে ছক্কা হাকিয়ে দলের শততম রানের সাক্ষী হন আরিফুল হক। শেষ ওভারে ফেরেন নিকোলাস পুরান। রানআউটের ফাঁদে বিদায় নেওয়ার আগে তিনি ৩০ বলে ২৯ রান করেন। পুরান ফেরার পরের বলেই কেভন কুপারকে নিজের বলে নিজে ক্যাচ নিয়ে ফেরান তাসকিন। আরিফুল ১৬ বলে ২৫ রান করে অপরাজিত থাকেন।

চিটাগংয়ের হয়ে ৪ ওভারে ২২ রান খরচায় তিনটি উইকেট তুলে নেন স্পিনার মোহাম্মদ নবী।

এর আগে নিজেদের প্রথম দুই ম্যাচ খেলে তামিমের চিটাগং একটি জয় আর একটি পরাজয় নিয়ে অর্জন করেছে দুই পয়েন্ট। পয়েন্ট টেবিলে তাদের অবস্থান চার নম্বরে। সমান দুই ম্যাচ খেলা মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের খুলনা এক জয়, এক পরাজয়ে তুলেছে দুই পয়েন্ট। তবে, রান ব্যবধানে পিছিয়ে থাকায় টেবিলের ছয় নম্বরে খুলনা।

এদিকে, দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে সাকিব আল হাসানের ঢাকা ডায়নামাইটসের প্রতিপক্ষ নাঈম ইসলামের রংপুর রাইডার্স।

সন্ধ্যা সাতটায় একই ভেন্যুতে মাঠে নামবে রংপুর-ঢাকা। দুই ম্যাচের একটিতে জয় আর সমান পরাজয়ে দুই পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের দুইয়ে রয়েছে সাকিব আল হাসানের ঢাকা। অপরদিকে, নিজেদের প্রথম দুই ম্যাচেই জয় তুলে নেওয়া নাঈম ইসলামের রংপুর সর্বোচ্চ ৪ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে রয়েছে।

চট্টগ্রাম ভাইকিংস: তামিম ইকবাল, এনামুল বিজয়, তাসকিন আহমেদ, আব্দুর রাজ্জাক, জহুরুল ইসলাম, শুভাশিষ রায়, জাকির হাসান, ডোয়াইন স্মিথ, শোয়েব মালিক, চতুরাঙ্গা ডি সিলভা, মোহাম্মদ নবী।

খুলনা টাইটানস: মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ, মোশাররফ হোসেন, শফিউল ইসলাম, শুভাগত হোম, আরিফুল, হাসানুজ্জামান, অলোক কাপালি, নিকোলাস পুরান, রিকি ওয়েসেলস, কেভন কুপার, জুনায়েদ খান।

Print Friendly, PDF & Email

Check Also

ঘরের মাঠে ম্যানইউকে পরাজয়ের স্বাদ দিল ম্যানসিটি

সাহেব-বাজার ডেস্ক : নিজেদের মাঠ ওল্ড ট্রাফোর্ডে ৪০ ম্যাচ ধরে অপরাজিত ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। ইংলিশ প্রিমিয়ার …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *