Ad Space

তাৎক্ষণিক

  • রোহিঙ্গা সংকটের জন্য আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে দুষলেন সু চি– বিস্তারিত....
  • লক্ষ্মীপুরে ভাটা শ্রমিকের লাশ উদ্ধার– বিস্তারিত....
  • ব্রিটিশ পদার্থবিজ্ঞানী স্টিফেন হকিং হাসপাতালে– বিস্তারিত....
  • ফেসবুক ও টুইটারে শাহরুখের পারিবারিক ছবি– বিস্তারিত....
  • টি-টুয়েন্টিতে এক হাজার রানের রেকর্ড তামিমের– বিস্তারিত....

কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসবে বলিউড তারকাদের মিলনমেলা

নভেম্বর ১১, ২০১৬

সাহেব-বাজার ডেস্ক : অমিতাভ বচ্চনের হাত ধরে আনুষ্ঠানিকভাবে সূচনা হল ২২ তম কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের। শুক্রবার বিকেলে কলকাতার নেতাজী ইন্ডোর স্টেডিয়ামে প্রদীপ জ্বালিয়ে উৎসবের আনুষ্ঠানিক সূচনা করেন বিগ বি। এসময় সেখানে উপস্থিত ছিলেন অমিতাভের স্ত্রী অভিনেত্রী জয়া বচ্চন, অভিনেতা শাহরুখ খান, সঞ্জয় দত্ত, কাজল, পরিণীতা চোপরা, পরিচালক গৌতম ঘোষ, হরনাথ চক্রবর্তী, রঞ্জিত মল্লিক, ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত, দেব, রিমি চক্রবর্তী, কোয়েল মল্লিক, নুসরাত জাহান, সায়ন্তনী, মমতা শঙ্করসহ টালিগঞ্জের একঝাঁক তারকা। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়সহ মন্ত্রিসভার অন্য সদস্যরাও।

তবে বাংলায় বক্তব্য রেখে এদিন উপস্থিত শ্রোতাদের নজর কেড়েছেন পশ্চিমবঙ্গের ‘ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডার’ শাহরুখ খান। মঞ্চে উঠেই শাহরুখ বলেন ‘মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী শ্রীমতি মমতা ব্যানার্জি। উপস্থিত সকল সম্মানিত অতিথি এবং জুরি মেম্বার, প্রিয় বন্ধুগণ, আপনাদের সবাইকে নমস্কার। কলকাতায় আসবো আর বাংলায় বলবো না একি কখনও হয়? এখনও আমার বাংলায় অনেক ভুল আছে। সে দোষ পুরোপুরি আমার। আশা করি আপনারা আমাকে ক্ষমা করবেন। আজ কিন্তু আরেকটা ভাষার কথাও বলবো, সেটা সিনেমার ভাষা…।’

এরপর মাঝে কিছুটা ইংরেজিতে বলে ফের বাংলায় বক্তব্য রাখা শুরু করেন শাহরুখ। অনুষ্ঠানে উপস্থিত সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে তিনি বলেন ‘আমি আগেও বলেছি কলকাতা আমার প্রাণের শহর, কলকাতা ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল আমার প্রাণের উৎসব। আমি আশা করবো এবারের উৎসব প্রতিবারের মতো সফল হবে। আর বেশি কিছু বলবো না। আসুন একসঙ্গে কিছু চমৎকার ছবি দেখি। নমস্কার, ধন্যবাদ’। তবে বক্তব্য রাখার আগে ভুলের জন্য ক্ষমা চেয়ে নিয়ে বাদশা বলেন ‘ভুল হলে ক্ষমা করে দেবেন, আগামী বছর খুব ভাল করে বাংলায় বলবো’।

১৮ নভেম্বর পর্যন্ত বাংলাদেশ, ফ্রান্স, জার্মানি, চীন, শ্রীলঙ্কা, ব্রাজিল, গ্রীসসহ বিশ্বের ৬৫টি দেশের মোট ১৫৬ টি ছবি দেখানো হবে এই উৎসবে। উৎসবের উদ্বোধন হয় বাংলা ছবি দিয়ে। এবারের উৎসবের ফোকাস কান্ট্রি চীন। আট দিনের এই উৎসবে চীনের মোট সাতটি ছবিকে দেখানো হবে।
নারী পরিচালিত ছবি নিয়ে এবারও থাকছে ‘কমপিটিটিভ সেকশন’ বিভাগ। এছাড়াও থাকছে এশিয়ান সিলেক্ট, ইন্ডিয়ান সিলেক্ট, কনটেম্পোরারি ওয়ার্ল্ড সিনেমা, বেঙ্গলি প্যানোরামা, চিলড্রেন সেকশন। নন্দন, শিশির মঞ্চ, রবীন্দ্রসদনরে পাশাপাশি স্টার, প্যারাডাইস, নবীনা, মিত্রাসহ কলকাতার ১৩টি পেক্ষাগৃহে এই ছবিগুলি প্রদর্শিত হবে।