Ad Space

তাৎক্ষণিক

রাজশাহীর বিপক্ষে নাটকীয় জয় খুলনার

নভেম্বর ৯, ২০১৬

সাহেব-বাজার ডেস্ক : বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে (বিপিএল) মুমিনুল হকের দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ের পরও শেষ ওভারের রোমাঞ্চে জয় বঞ্চিত হয়েছে রাজশাহী কিংস। ইনিংসের শেষ ওভারে তিন উইকেট নিয়ে দলের জয় নিশ্চিত করেছেন খুলনা অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ। রোমাঞ্চকর ম্যাচে তিন রানের জয় পেয়েছে খুলনা টাইটান্স।

জয়ের জন্য শেষ ওভারে রাজশাহীর প্রয়োজন ছিল ৭ রান। আবুল হাসান আর মোহাম্মদ সামি ছিলেন উইকেটে। বোলার মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে খুব সহজেই এই লক্ষ্য পার হওয়া যায়। আবার গৌরবময় অনিশ্চয়তায় ঢাকা থাকে শেষের এই মুহূর্তগুলোও। মিরপুর শেরেবাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে সেই অনিশ্চয়তার চূড়ান্ত রূপই দেখলো ক্রিকেট ভক্তরা।

দারুণ টান টান উত্তেজনা। শ্বাসরূদ্ধকর পরিস্থিতি। শেষ পর্যন্ত ৩ রানের নাটকীয় এক জয় নিয়েই মাঠ ছাড়লো খুলনা টাইটান্স। হারিয়ে দিলো রাজশাহী কিংসকে।

মাহমুদউল্লার প্রথম বল থেকেই এক রান নিয়ে ফেলেন আবুল হাসান। দ্বিতীয় বলে মোহাম্মদ সামি লেগ বাই থেকে নেন ১ রান। তৃতীয় বলে ওয়াইড। যোগ হলো আরও এক রান। শেষ চার বলে প্রয়োজন ৪ রান। পরের বলেই আরিফুল হকের হাতে দারুণ এক ক্যাচে পরিণত হন আবুল হাসান রাজু।

বল বাকি তিনটা, রান প্রয়োজন ৪। চতুর্থ বলেও উইকেট। এবার আউট হলেন মোহাম্মদ সামি। মাহমুদউল্লাহর ঘূর্ণিতে বোল্ডই হয়ে গেলেন তিনি। সম্ভাবনা তৈরি হলো হ্যাটট্রিকের। ৫ম বলে স্ট্যাম্পিংয়ের জোরালো আবেদন। থার্ড আম্পায়ার কল করে দেখা গেলো, আউট হননি নাজমুল হাসান। তবে ওই বলে রানও হয়নি।

শেষ বলে প্রয়োজন ৪ রান। একটি বাউন্ডারি মারলেই জয়। সে লক্ষ্যেই মাহমুদউল্লাহকে এগিয়ে এসে খেলতে যান নাজমুল হাসান। কিন্তু ব্যাটেই বল লাগাতে পারেননি। হয়ে গেলেন স্ট্যাম্পিং। শেষ ওভারে এমন নাটকীয়তায় শেষ পর্যন্ত ৩ রানে খুলনার কাছে হেরে গেলো রাজশাহী।

এর আগে আবুল হাসান রাজুর দুর্দান্ত বোলিংয়ে নিজেদের স্কোর বড় করতে পারেনি খুলনা টাইটান্স। নির্ধারিত ২০ ওভার শেষে আট উইকেট হারিয়ে ১৩৩ রান তোলে দলটি।

খুলনার হয়ে সর্বোচ্চ ৩২ রান করে করেন রিকি ওয়েসয়েলস ও অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। আর রাজশাহী কিংসের হয়ে ৪ ওভারে ২৮ রানের বিনিময়ে পাঁচ উইকেট তুলে নেন ডান হাতি পেসার রাজু।

বুধবার (৯ নভেম্বর) বিপিএলের চতুর্থ আসরের তৃতীয় ম্যাচে মুখোমুখি হন সাব্বির-মাহমুদউল্লাহ। সাব্বির রহমানের রাজশাহীর বিপক্ষে টস জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন খুলনা দলপতি মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।