Ad Space

তাৎক্ষণিক

রাজশাহীতে আবাসিক হোটেলে ৭ যৌনকর্মীসহ ১৩ জনের দণ্ড

নভেম্বর ৯, ২০১৬

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজশাহী মহানগরীর সাহেববাজার এলাকায় অবস্থিত আবাসিক হোটেল সূর্যমুখীতে অভিযান চালিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। সোমবার বিকেলের ওই অভিযানে হোটেল থেকে ৭ যৌনকর্মীসহ ১৩ জনকে আটক করে কারাদণ্ড ও অর্থদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

বুধবার সন্ধ্যায় জেলা প্রশাসক কাজী আশরাফ উদ্দিন এ তথ্য জানিয়েছেন। তিনি জানান, সাহেববাজার বড় মসজিদ সংলগ্ন ওই হোটেলটিতে অসামাজিক কর্মকাণ্ড চলছে বলে স্থানীয়রা বেশ কিছু দিন ধরে জেলা প্রশাসনের কাছে অভিযোগ করে আসছিলেন। অভিযোগের প্রেক্ষিতে সোমবার বিকেলে জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মুহাম্মদ ইসমাঈল ও শান্তনু কুমার দাশের নেতৃত্বে একটি ভ্রাম্যমাণ আদালত হোটেলটিতে অভিযান চালান।

এ সময় অসামাজিক কার্যকলাপে লিপ্ত থাকা অবস্থায় হোটেলের বিভিন্ন কক্ষ থেকে ৭ যৌনকর্মী ও ৫ খদ্দেরকে আটক করা হয়। আটক করা হয় হোটেলের ব্যবস্থাপক সুবাস চন্দ্র বর্মনকেও। এছাড়া হোটেল থেকে জব্দ করা হয় বিপুল পরিমাণ কনডম, লুব্রিক্যান্ট ও যৌন উত্তেজক ওষুধ।

জেলা প্রশাসক জানান, আটকের পর জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে সুবাস স্বীকার করেন, দীর্ঘ দিন ধরে হোটেলটিতে বাণিজ্যিকভাবে এ ধরনের অসামাজিক কার্যকলাপ চলে আসছিল। এ সময় ভ্রাম্যমাণ আদালত সুবাসসহ আটক সবাইকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড ও বিভিন্ন অঙ্কে অর্থদণ্ড দেন।

জেলা প্রশাসক কাজী আশরাফ উদ্দিন বলেন, সমাজে মানুষের নৈতিক মূল্যবোধের অবক্ষয় রোধে এ ধরনের অসামাজিক কর্মকাণ্ড বন্ধ হওয়া একান্ত প্রয়োজন। এ বিষয়ে রাজশাহী জেলা প্রশাসন কঠোর অবস্থান নিয়েছে। অপরাধীদের আইনের আওতায় এনে সুন্দর ও সুস্থ সমাজ গড়তে জেলা প্রশাসনের এ কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।