Ad Space

তাৎক্ষণিক

  • রাসিকের বর্ধিত ট্যাক্স বাতিলের দাবিতে হরতালের ডাক– বিস্তারিত....
  • রোহিঙ্গা সংকটের জন্য আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে দুষলেন সু চি– বিস্তারিত....
  • লক্ষ্মীপুরে ভাটা শ্রমিকের লাশ উদ্ধার– বিস্তারিত....
  • ব্রিটিশ পদার্থবিজ্ঞানী স্টিফেন হকিং হাসপাতালে– বিস্তারিত....
  • ফেসবুক ও টুইটারে শাহরুখের পারিবারিক ছবি– বিস্তারিত....

রাজশাহীতে বোমা বানাতে গিয়ে কব্জি উড়ে গেলো যুবকের

নভেম্বর ৫, ২০১৬

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজশাহীর পুঠিয়ার বেলপুকুরে বোমা বানাতে গিয়ে এক যুবকের দুই হাতের কব্জি উড়ে গেছে আহত হয়েছে আরও একজন। শনিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।  এ ঘটনায় একজনকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ রামেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এ ঘটনায় আহত হলেন, চারঘাট থানার গোপালপুর এলাকার আবু বক্কর শেখের ছেলে আবদুল খালেক (২৮)। তবে আহত অপরজনের নাম ঠিকানা পাওয়া যায়নি।

পুঠিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাফিজুর রহমান জানান, পুঠিয়ার তাড়াশ এলাকার সোহরাব আলীর ছেলে জাহিদের বাড়িতে কয়েকজন মিলে বোমা তৈরি করছিল। এসময় তাদের অসাবধানতাবসত বোমা বিস্ফোরণ হলে খালেকের দুই হাতের কব্জি উড়ে যায়। এসময় অন্যরা আহত হলে তারা ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়।

স্থানীয়রা জানান, বোমা বিস্ফোরণের পর খালেক বাড়ির মেইন সুইচের বোর্ডের সঙ্গে ঝুলছিল। এলাকাবাসী তাকে সেখান থেকে নামিয়ে কাপড় দিয়ে জড়িয়ে রাখে। পরে ঘটনাস্থলে পুলিশ উপস্থিত হয়ে খালেককে আটক করে রাত সাড়ে ৮টার দিকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। আহত খালেকের অবস্থা অশঙ্কাজনক। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত তার অস্ত্রেপচার চলছিল।

রামেক হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক মিথুন জানান, খালেকের দুই কব্জি এবং ডান চোখ উড়ে গেছে। এছাড়া তার শরীরের বিভিন্ন স্থানে স্প্রিন্টার আছে।

চারঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নিবারণ চন্দ্র বর্মণ জানান, আবদুল খালেক পুলিশের তালিকাভুক্ত জেএমবি সদস্য। সে দীর্ঘদিন ধরে পলাতক ছিল। এর আগে জেএমবি সংশ্লিষ্টতার অভিযোগে তার ভাইকে গ্রেফতার করে পুলিশ।