Ad Space

তাৎক্ষণিক

  • ‘আপত্তিকর’ কাজে বাধা দেয়ায় প্রহরীকে মারধর– বিস্তারিত....
  • বামশক্তি কনসোলিটেড হয়ে দাঁড়াতে না পারলে ফিল ইন দ্য ব্লাংক করে ফেলবে ধর্মীয় শক্তি : আবুল বারকাত– বিস্তারিত....
  • মধ্যম আয়ের দেশ গড়তে হলে ভ্যাটের বিকল্প নেই : ভূমিমন্ত্রী– বিস্তারিত....
  • নাটোরে নির্মাণের ৯ মাসেই ভেঙে পড়েছে কালভার্ট– বিস্তারিত....
  • নাটোরে ইয়াবাসহ চার যুবক আটক– বিস্তারিত....

বাংলাদেশের ‘শীর্ষ জঙ্গি’ ভারতে আটক

নভেম্বর ৫, ২০১৬

সাহেব-বাজার ডেস্ক : বাংলাদেশে বোমা তৈরি ও বিস্ফোরণসহ একাধিক নাশকতার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে বাসিরমুল্লা শেখ (৪০) নামে এক বাংলাদেশি নাগরিককে আটক করেছে ভারতীয় পুলিশ। গত দুই বছর ধরে সে পলাতক ছিল বলে জানা গেছে।

শুক্রবার মহারাষ্ট্রের থানে জেলার কালবা মণীশা নগর গেট থেকে একটি ডাকাতির ঘটনায় তাকে আটক করে ক্রাইম ব্রাঞ্চের গোয়েন্দারা। গতকালই তাকে আদালতে তোলা হয়। আদালত তাকে আগামী ৭ নভেম্বর পর্যন্ত রিমান্ডে রাখার নির্দেশ দিয়েছে আদালত। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে বাংলাদেশের একাধিক জায়গায় নাশকতা সংগঠিত করার কথা জানতে পারে ভারতীয় পুলিশ।

ক্রাইম ব্রাঞ্চের ডিসিপি পরাগ মানেরে জানান, ‘দীর্ঘদিন ধরেই নবি মুম্বাইয়ের ঘানশোলি এলাকায় বাস করছিল এই বাসিরমুল্লা, সেখানে শ্রমিকের কাজ করতো সে। ভারতে অবৈধভাবে বসবাসের অভিযোগে গত মার্চে তাকে আটক করে মুম্বাই পুলিশের সিআইডি গোয়েন্দারা। সেসময় তার কাছ থেকে একটি পাসপোর্ট উদ্ধার করা হয়। এরপর ভারতীয় পাসপোর্ট আইন ও ফরেনার্স অ্যাক্টে তার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়। যদিও পরে আদালত থেকে জামিন পায় বাসিরমুল্লা।

ক্রাইম ব্রাঞ্চের ওই কর্মকর্তা আরও জানান ‘বাসিরমুল্লাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে জানা যায় বাংলাদেশে থাকাকালীন জঙ্গি ও সন্ত্রাসবাদী সংগঠনগুলির কাছ থেকে বোমা বানানোর প্রশিক্ষণ নিয়েছিল। বাংলাদেশের দক্ষিণ-পশ্চিম প্রান্তে নড়াইল জেলায় নিজের বাড়িতে বোমাও তৈরি করেছিল, পরবর্তীতে বেশ কিছু জায়গায় বিস্ফোরণও ঘটিয়েছিল যেখানে বেশ কিছু মানুষ নিহত হয়। বোমা বিস্ফোরণের অভিযোগে ২০১৪ সালে নড়াইয়ের কালিয়া থানায় বাসিরমুল্লা ও তার সঙ্গীর বিরুদ্ধে মামলা হয়। এমনকি এরকমই একটি বিস্ফোরণে নিজের স্ত্রী সুলতানাও নিহত হয়। ওই ঘটনার পরই দেশ থেকে পালিয়ে যায় বাসিরমুল্লা’।

ক্রাইম ব্রাঞ্চের ধারণা, ২০১৩ সালে ৪ মার্চ ভারতের রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জির ঢাকা সফরকালে রাষ্ট্রপতি হোটেলের বাইরে একটি বিস্ফোরণের ঘটনায় এই বাসিরমুল্লা জড়িত থাকতে পারে। যদিও এই বিষয়টি নিশ্চিত হওয়ার চেষ্টা করছে পুলিশ। ভারতের রাষ্ট্রপতির ঢাকা সফরকালে মৌলবাদী সংগঠন জামাত-ই-ইসলামী বাংলাদেশ জুড়ে হরতালের ডাক দিয়েছিল। যুদ্ধাপরাধের অভিযোগে জামাতের দেলওয়ার হোসাইন সাঈদীকে ফাঁসির নির্দেশের বিরুদ্ধে বাংলাদেশ জুড়ে সে সময় অগ্নিগর্ভ পরিস্থিতি তৈরি হয়।

পুলিশ কর্মকর্তা জানিয়েছেন, ‘বাসিরমুল্লার বিরুদ্ধে আমরা যেসব সাক্ষ্য পেয়েছি সেগুলিকে খতিয়ে দেখা হচেছ। আমরা নিশ্চিত হয়েছি যে বাংলাদেশে একাধিক নাশকতার সঙ্গে জড়িত থাকার দায়ে তার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে।’