Ad Space

তাৎক্ষণিক

  • ‘আপত্তিকর’ কাজে বাধা দেয়ায় প্রহরীকে মারধর– বিস্তারিত....
  • বামশক্তি কনসোলিটেড হয়ে দাঁড়াতে না পারলে ফিল ইন দ্য ব্লাংক করে ফেলবে ধর্মীয় শক্তি : আবুল বারকাত– বিস্তারিত....
  • মধ্যম আয়ের দেশ গড়তে হলে ভ্যাটের বিকল্প নেই : ভূমিমন্ত্রী– বিস্তারিত....
  • নাটোরে নির্মাণের ৯ মাসেই ভেঙে পড়েছে কালভার্ট– বিস্তারিত....
  • নাটোরে ইয়াবাসহ চার যুবক আটক– বিস্তারিত....

আমাদের নীতি দেশকে উন্নত করা : প্রধানমন্ত্রী

নভেম্বর ৫, ২০১৬

সাহেব-বাজার  ডেস্ক : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, সরকারের সঠিক নীতির কারণে দেশে ধনী-গরিবের বৈষম্য কমেছে। আমাদের নীতি দেশকে উন্নত করা। সমবায়কে বহুমুখী হিসেবে গড়ে তোলা। দেশের উন্নয়নে সবাইকে সম্মিলিতভাবে কাজ করতে হবে।শনিবার (৫ নভেম্বর) সকালে রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে ৪৫তম সমবায় দিবসের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমাদের বহুদূর যেতে হবে। সেই লক্ষ্য নিয়ে আমরা কাজ করছি। সমবায় আইন যাতে সবাই বুঝতে পারে সেইভাবে বাংলায় তৈরি করা হয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘দেশের উন্নয়ন করতে বিভিন্ন প্রকল্প আমরা হাতে নিয়েছি। প্রতিটি এলাকায় সমবায়ভিত্তিক বিভিন্ন কাজ চলছে। মৎস্য খামার, গবাদি পশু খামার, হস্তশিল্প উন্নয়ন, পরিবেশের উন্নয়ন, কুটির শিল্প, মৃৎ শিল্পের উন্নয়নে কাজ চলছে।’

শেখ হাসিনা বালেন, ‘সমগ্র বাংলাদেশে ১০০টি অর্থনৈতিক অঞ্চল গড়ে তোলা হবে। যাতে যত্রতত্র চাষের জমি নষ্ট করে, শিল্প কারখানা গড়ে না ওঠে। অর্থনৈতিক অঞ্চলে ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পও গড়ে উঠবে।’

বহুমুখী সমবায় বাস্তবায়নের আহ্বান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘মাইক্রো ক্রেডিটের পরিবর্তে মাইক্রো সেভিং চালু হয়েছে। যাতে কাউকে ঋণের বোঝা মাথায় নিয়ে আত্মহত্যা করতে না হয়। মাইক্রো সেভিংয়ের মাধ্যমে মানুষ নিজের মতো কাজ করতে পারবে। পল্লী সঞ্চয় ব্যাংকে টাকা জমা রাখতে পারবে। নিজে ২০০ টাকা জমা করতে পারলে সরকার তাকে আরো ২০০ টাকা দেবে। এভাবে দুই বছর পর্যন্ত সেবা পাবে।’

শেখ হাসিনা বলেন, ‘এখন দেশে কত পরিবর্তন হয়েছে। এখন ডিজিটাল সেন্টার করে দেওয়া হয়েছে। একজন কৃষকও মোবাইল ফোনের মাধ্যমে তথ্য নিতে পারে। এসব সুযোগ দিয়ে আমরা দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছি। ২০৪১ সালে বাংলাদেশ দক্ষিণ এশিয়ার উন্নত দেশ হবে। এক্ষেত্রে সমবায় আন্দোলনটা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারে।’