Ad Space

তাৎক্ষণিক

এশিয়ান সিনেমা রেট্রোস্পেক্টিভে এবার বাংলাদেশের ছবির গুরুত্ব

নভেম্বর ৪, ২০১৬

সাহেব-বাজার ডেস্ক : ম্যুভিয়ানা ফিল্ম সোসাইটি ও বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির উদ্যোগে এশিয়ার ১৯টি দেশের ৫৬ জন চলচ্চিত্রকারের ৬৫টি চলচ্চিত্র নিয়ে গত ১৬ জুলাই শুরু হয় ১৭ সপ্তাহের ‘এশিয়ান সিনেমা রেট্রোস্পেক্টিভ’। এই কর্মসূচি শেষ হচ্ছে চলতি মাসে। এবার গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে বাংলাদেশের চলচ্চিত্র।

নভেম্বর জুড়ে থাকছে বাংলাদেশের পাঁচটি কাহিনিচিত্র ও পাঁচটি প্রামাণ্য চলচ্চিত্র। এ ছাড়া সমাপনী মাসে ভারত, পাকিস্তান, চীন ও জাপানের একটি করে এবং ইরানের দুটি চলচ্চিত্র রয়েছে। শুক্রবার (৪ নভেম্বর) থাকছে মসিহউদ্দিন শাকের ও শেখ নিয়ামত আলীর ‘সূর্যদীঘল বাড়ী’ এবং জাপানের ওয়াসিজুরো ওজু পরিচালিত ‘টোকিও স্টোরি’। শনিবার (৫ নভেম্বর) দেখানো হবে পাকিস্তানি নির্মাতা শোয়েব মানসুরের ‘বোল’।

১১ নভেম্বর রয়েছে ইরানের জাফর পানাহি পরিচালিত ‘দ্য সার্কেল’ এবং চীনের জিয়াঙ ওয়েনের ‘ডেভিল অন দ্য ডোর স্টেপ’। ১২ নভেম্বর থাকবে ইরানের মাজিদ মাজিদির ‘বারান’। ১৮ নভেম্বর থাকছে তানভীর মোকাম্মেলের ‘চিত্রা নদীর পাড়ে’ ও ভারতের নন্দিতা দাসের ‘ফিরাক’। ১৯ নভেম্বর দেখানো হবে বাদল রহমান পরিচালিত ‘এমিলের গোয়েন্দা বাহিনী’ এবং হারুন-আর-রশিদের ‘মেঘের অনেক রং’।

আগামী ২৫ নভেম্বর রয়েছে চারটি প্রামাণ্য চলচ্চিত্র। এগুলো হলো ইয়াসমিন কবিরের ‘পরবাসী মন আমার’, সাইফুল ওয়াদুদ হেলালের ‘অপরাজেয় বাংলা’, মোল্লা সাগরের ‘সাইরেন’ এবং পলাশ রসূলের ‘ঢাকা মেট্রো-চ’। ২৬ নভেম্বর থাকবে প্রসূন রহমানের প্রামাণ্য চলচ্চিত্র ‘ফেরা’। এদিন এশিয়ান সিনেমা রেট্রোস্পেক্টিভের সমাপনী ছবি হিসেবে থাকছে তারেক মাসুদের কাহিনিচিত্র ‘রানওয়ে’।

ম্যুভিয়ানা ফিল্ম সোসাইটির সভাপতি বেলায়াত হোসেন মামুন জানান, ঢাকার সেগুনবাগিচায় বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় নাট্যশালার ইন্টারন্যাশনাল ডিজিটাল কালচারাল আর্কাইভ কক্ষে প্রতিদিন প্রদর্শনী শুরু হবে বিকেল ৪টায়। প্রতিটি প্রদর্শনীর আগে ও পরে থাকবে আলোচনা। সবার জন্য উন্মুক্ত।