Ad Space

তাৎক্ষণিক

  • আ’লীগকে আবারও ক্ষমতায় আনতে প্রস্তুত নিতে হবে : শাহরিয়ার– বিস্তারিত....
  • রাজশাহীতে বেড়েছে মৌসুমী ভিক্ষুক– বিস্তারিত....
  • চারঘাট-বাঘা সীমান্তে থেমে নেই চোরাকারবারী চক্র– বিস্তারিত....
  • তানোরে গ্রাম পুলিশ ও ৪র্থ শ্রেনীর কর্মচারীদের মধ্যে লুঙ্গি ও শাড়ি বিতরন– বিস্তারিত....
  • চীনে ভূমিধস: নিখোঁজ শতাধিক মানুষ– বিস্তারিত....

রাবিতে ছাত্রলীগ নেতাকে না চেনায় শিক্ষার্থীকে চড়

নভেম্বর ৪, ২০১৬

রাবি প্রতিবেদক : রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) ছাত্রলীগ নেতাকে না চেনায় শিক্ষার্থীকে চড় মেরেছে কামরুজ্জামান কিরণ নামের এক নেতা। শুক্রবার শাহ্মখদুম হল গেটে দর্শন বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী ফিরোজ আহমেদ মারধরের শিকার হন। মারধরকারী কামরুজ্জামান কিরণ ইতিহাস বিভাগের মাস্টার্সের শিক্ষার্থী এবং শাহ্মখদুম হল শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক।

জানা যায়, শুক্রবার বিকাল চারটা থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের শহিদুল্লাহ কলা ভবনের ১৫০ নম্বর কক্ষে বঙ্গবন্ধু পরিষদ রাজশাহী জেলা শাখার উদ্যোগে ‘জেল হত্যা দিবস’ উপলক্ষে আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। ওই অনুষ্ঠানে ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে বিভিন্ন হলের শিক্ষার্থীদেরকে উপস্থিত করতে বলা হয়। হলের নেতা কর্মীরা তাই শিক্ষার্থী ও দলীয় কর্মীদের অনুষ্ঠানে নিয়ে যায়। সেই অনুষ্ঠানে যাওয়ার বিষয় নিয়ে সাধারণ সম্পাদক কিরণ শাহ মখদুম হলের এক শিক্ষার্থীকে চড় মারেন।

ভুক্তভোগী ফিরোজ আহমেদ বলেন, ছাত্রলীগ নেতা কিরণ আমাকে তাদের একটি অনুষ্ঠানে যেতে বলে। সামনে পরীক্ষা থাকায় আমি ওই অনুষ্ঠানে যেতে অপারগতা প্রকাশ করি। এ সময় কিরণ ভাইকে চিনতে না পারায় আমাকে চড় মেরেছে।

ছাত্রলীগ নেতা কিরণ চড় মারার কথা স্বীকার করে বলেন, ‘অনুষ্ঠানে না যাওয়ার জন্য তাকে মারধর করা হয়নি। চার বছর হলে থাকার পরেও ওই শিক্ষার্থী আমাকে না চেনায় চড় মেরেছি।’

রাবি ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি রাশেদুল ইসলাম রাঞ্জু বলেন, ‘বিষয়টি জেনে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’