Ad Space

তাৎক্ষণিক

  • কোয়ালিফায়ারে রাজশাহী, বিদায় তামিমদের– বিস্তারিত....
  • নাটোরে মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রী ও সাংবাদিক নান্টুর মায়ের ইন্তেকাল– বিস্তারিত....
  • রাজশাহীতে ছাত্রমৈত্রীর প্রতিষ্ঠাবাষির্কী পালিত– বিস্তারিত....
  • রাজশাহীর সংবাদপত্রগুলোতে নিয়োগপত্রের দাবিতে আরইউজে’র স্মারকলিপি– বিস্তারিত....
  • নছিমনের ধাক্কায় ২ মোটরসাইকেল আরোহী নিহত– বিস্তারিত....

মানবতাবিরোধী অপরাধ : ইদ্রিস আলীর রায় যেকোনো দিন

নভেম্বর ২, ২০১৬

সাহেব-বাজার ডেস্ক : ট্রাইব্যুনাল যেকোনো দিন রায় ঘোষণা করবেন মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় শরীয়তপুরের ইদ্রিস আলী সরদারের (৬৭) বিরুদ্ধে । বুধবার (২ নভেম্বর) চূড়ান্ত শুনানি শেষে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের চেয়ারম্যান বিচারপতি আনোয়ারুল হকের নেতৃত্বে ৩ সদস্যর বেঞ্চ মামলাটি রায়ের জন্য অপেক্ষমাণ রাখেন।

ট্রাইব্যুনালে রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন প্রসিকিউটর জেয়াদ আলম মালুম ও রেজিয়া সুলতানা চমন।

এই মামলায় আটক আরেক আসামি মো. সুলা্ইমান মোল্লা(৮৪) সম্প্রতি ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যাওয়ায় অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে তাঁকে।

এর আগে ২০১৫ সালের ২২ ডিসেম্বর শরীয়তপুরের মো. সুলাইমান মোল্লা(৮৪) ও ইদ্রিস আলী সরদারের (৬৭) বিরুদ্ধে অভিযোগ আমলে নেন ট্রাইব্যুনাল।

গত বছরের ২৯ অক্টোবর হত্যা, গণহত্যা, ধর্ষণ, নিযাতন, লুন্ঠন, অগ্নিসংযোগসহ চার অভিযোগে তাদের বিরুদ্ধে তদন্তের চূড়ান্ত প্রতিবেদন প্রকাশ করে তদন্ত সংস্থা।

আসামিরা শরীয়তপুর জেলার পালং থানার ৫ নম্বর ওয়ার্ডের কাশিপুর মুসলিম পাড়ার অধিবাসী।

তদন্ত সংস্থা সূত্রে জানা যায়, ১৯৬৯ সালে জামায়াতের ছাত্র সংগঠন ‘ইসলামি ছাত্র সংঘের’ নেতা ছিলেন ইদ্রিস আলী। ১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযোদ্ধের সময় ইদ্রিস ইসলামি ছাত্র সংঘের সক্রিয়কর্মী ছিলেন। গত বছরের ১৫ জুন থেকে সোলায়মান মোল্লা আটক ছিলেন। এখনো পলাতক রয়েছেন ইদ্রিস আলী।