Ad Space

তাৎক্ষণিক

বাল্যবিয়ে থেকে রক্ষা পেলো স্কুলছাত্রী

নভেম্বর ২, ২০১৬

নিজস্ব প্রতিবেদক, দুর্গাপুর : দুর্গাপুরে রুনা খাতুন (১২) নামের সপ্তম শ্রেনির এক ছাত্রী বাল্যবিয়ে থেকে রক্ষা পেয়েছে। তিনি উপজেলার পালশা গ্রামের রহিদুল ইসলামের মেয়ে।

বুধবার বিকেলে বাল্যবিয়ের প্রস্তুতিকালে উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা ঘটনাস্থলে গিয়ে বাল্যবিয়ে বন্ধ করে দেন। পরে কনের পিতা ও স্থানীয় ইউপি সদস্যর ভ্রাম্যমাণ আদালতে অর্থদণ্ড করা হয়।

উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা মাক্বামাম মাহমুদা রিপা জানান, বুধবার বিকেলে পালশা উচ্চ বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেনির ছাত্রী রুনার বাল্যবিয়ের প্রস্তুতি চলছিলো। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পালশা গ্রামের রহিদুলের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে স্কুলছাত্রী রুনার বাল্যবিয়ে বন্ধ করে দেন।

এসময় কনের পিতা রহিদুলকে আটক করে নিয়ে আসা হয়। পরে সন্ধায় ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে মেয়েকে বাল্যবিয়ে দেওয়ার অপরাধে কনের পিতা ও এ কাজে সহযোগিতা করার অপরাধে স্থানীয় ইউপি সদস্য রুবেল হোসেনের প্রত্যেকের ১ হাজার টাকা করে অর্থদণ্ড করা হয়।