Ad Space

তাৎক্ষণিক

‘চারুকলার দাদু’কে নিয়ে প্রামাণ্যচিত্র

নভেম্বর ২, ২০১৬

সাহেব-বাজার ডেস্ক : ‘চারুকলার দাদু’- এই নামেই সবাই চিনতেন তাকে। শিক্ষার্থীরা প্রিয় দাদুর ছবি এঁকে এঁকেই শিখেছেন ছবি আঁকার কলাকৌশল। তিনি মোমিন আলি মৃধা। ২০১১ সালের ২০ ডিসেম্বর ১০৩ বছর বয়সে সবাইকে কাঁদিয়ে দাদু চলে যান না ফেরার দেশে।
মোমিন আলি মৃধার জীবনযাপন ২০০১ সাল থেকে ক্যামেরায় বন্দি করতে শুরু করেন চারুকলার ছাত্র মোল্লা সাগর। শেষ হয় ২০০৮ সালে। এরপর প্রায় ৩ বছর সময় নিয়ে দাদুর উপর প্রামাণ্যচিত্র প্রস্তুত করেন চারুকলার প্রাক্তন এ ছাত্র। গত ৬ অক্টোবর সন্ধ্যায় সেই প্রামাণ্যচিত্রের উদ্বোধনী প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয় জাতীয় গ্রন্থাগারের শওকত ওসমান মিলনায়তনে। এতে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চলচ্চিত্রকার আজিজুর রহমান, মসিউদ্দিন শাকের ও চারুকলা অনুষদের ডিন অধ্যাপক নিসার হোসেন।
প্রামাণ্যচিত্রে পরিচালক সাগর অসাধারণভাবে ফুটিয়ে তুলেছেন দাদুর ব্যক্তিজীবন। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ, ছিয়াত্তরের মন্বন্তর, একত্তরের মুক্তিযুদ্ধের সাক্ষী ছিলেন দাদু। সেটাও তিনি সংক্ষিপ্ত আকারে তুলে ধরেছেন তার প্রামাণ্যচিত্রে।
প্রদর্শনী শেষে নির্মাতা তার অনুভূতি ব্যক্ত করতে গিয়ে বলেন, “দাদুর কাছ থেকে অনেক কিছু নিয়েছি সেই দায় শোধ করতে পারিনি। ভালোবাসা তো সবার কাছ থেকে পাওয়া যায় না। দাদুর কাছ থেকেই পেয়েছিলাম বলেই দাদুর জন্য আমার এই প্রয়াস।”