Ad Space

তাৎক্ষণিক

  • কোয়ালিফায়ারে রাজশাহী, বিদায় তামিমদের– বিস্তারিত....
  • নাটোরে মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রী ও সাংবাদিক নান্টুর মায়ের ইন্তেকাল– বিস্তারিত....
  • রাজশাহীতে ছাত্রমৈত্রীর প্রতিষ্ঠাবাষির্কী পালিত– বিস্তারিত....
  • রাজশাহীর সংবাদপত্রগুলোতে নিয়োগপত্রের দাবিতে আরইউজে’র স্মারকলিপি– বিস্তারিত....
  • নছিমনের ধাক্কায় ২ মোটরসাইকেল আরোহী নিহত– বিস্তারিত....

লিপু হত্যা : বিচার দাবিতে মশাল মিছিল, মহাসমাবেশ কাল

নভেম্বর ১, ২০১৬

রাবি প্রতিবেদক : রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের( রাবি) গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষার্থী মোতালেব হোসেন লিপু হত্যার বিচার দাবিতে মশাল মিছিল করেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৬টায় লিপু চত্বর থেকে মিছিলটি শুরু হয়ে ক্যাম্পাস প্রদক্ষিণ করে প্রথমে শহীদ মিনারে যায়। পরে সেখানে থেকে নবাব আবদুল লতিফ হলের সামনে গিয়ে শেষ হয়।

এসময় শিক্ষার্থীরা ‘আমার ভাই মরলো কেন? প্রশাসন জবাব চাই’, ‘দিনে রাতে লাশ পড়ে, প্রশাসন কী করে’, ‘বিচার বিচার বিচার চাই, লিপু হত্যার বিচার চাই’, ‘লিপুর খুনিরা, হুঁশিয়ার সাবধান’, ‘জ্বালো রে জ্বালো, আগুন জ্বালো’Ñএসব প্রতিবাদী স্লোগানে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা শিক্ষার্থী মোতালেব হোসেন লিপু হত্যার সুষ্ঠু তদন্ত ও বিচার দাবি জানান।

মিছিল শেষে বিভাগের মাস্টার্সের শিক্ষার্থী রাসেল মাহমুদ বলেন, ‘রাবি ক্যাম্পাসে একের পর এক এভাবে লাশ পরবে আর কোনো হত্যার বিচার হবে না, বিচারহীনতার এই সংস্কৃতির প্রতিবাদী আমারা আন্দোলন চালিয়ে যাব। আমরা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিতর আর কোনো খুন দেখতে চাই না। আমরা আমাদের ভাই হত্যার বিচার চাই।

এসময় গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী ইমরান খান নাহিদ বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের হলের ভিতর একজন শিক্ষার্থী খুন হলো। অথচ এই ঘটনার ১২ দিন পার হয়ে গেলেও খুনিদের শনাক্ত করতে পারেনি পুলিশ। লিপু এই বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ছিলো। লিপু আমাদের সকলের ভাই। তাই বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল শিক্ষার্থীকে লিপু হত্যার বিচার দাবির আন্দোলনে অংশ নেয়ার অনুরোধ জানান তিনি।

এদিকে লিপু হত্যার বিচার দাবিতে আগামীকাল সকাল ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট ভবনের সামনে মহাসমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে। গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের দেয়া ৭ দিনের আল্টিমেটাম শেষ হলেও এখনো লিপু হত্যার খুনিদের শনাক্ত না করতে পারেনি প্রশাসন। তাই প্রকৃত খুনিদের শনাক্ত করে শাস্তির দাবিতে আগামীকাল শিক্ষার্থীদের ডাকে এই মহাসমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে জানিয়েছেন গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের সভাপতি ড. প্রদীপ কুমার পাণ্ডে।

তিনি বলেন, আমাদের বিভাগের শিক্ষার্থী  লিপু হত্যার বিচার দাবি করে প্রশাসনের কাছে আমরা ৭ দিনের আল্টিমেটাম দিয়েছিলাম। এই ৭ দিন পার হলেও খুনি শনাক্ত তো দুরের কথা মামলার অগ্রগতি তেমন একটা আমরা এখনো দেখতে পায়নি। তাই শিক্ষার্থীদের ডাক দেয়া মহাসমাবেশে বিভাগের পক্ষ থেকে একাত্মতা জানানো হয়েছে।

এর আগে মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে সাতদিনের জন্য ক্লাস বর্জন কর্মসূচির ঘোষণা দেয় গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষার্থীরা। আগামী ২ নভেম্বর থেকে ৮ নভেম্বর তারা এ কর্মসূচি পালন করবে।

গত ২০ অক্টোবর নবাব আব্দুল লতিফ হলের ড্রেন থেকে মোতালেব হোসেন লিপুর লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। পরে ওইদিন বিকেলে লিপুর চাচা বাদী হয়ে নগরীরর মতিহার থানায় অজ্ঞাতনামাদের আসামি করে হত্যা মামলা দায়ের করেন। এ মামলায় লিপুর রুমমেট মনিরুল ইসলামকে গ্রেফতার দেখানো হয়। গত ২৬ অক্টোবর মনিরুলকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য চারদিনের রিমান্ডে নেওয়া হয়।