Ad Space

তাৎক্ষণিক

রাজশাহীতে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রীর আত্মহত্যা

অক্টোবর ৩০, ২০১৬

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজশাহী মহানগরীর রানীনগর হিন্দুপাড়া এলাকায় গলায় ফাঁস দিয়ে আনিকা খাতুন(২০) নামে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী আত্মহত্যা করেছে। রোববার বিকেলে পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে। আনিকা খাতুন রাজশাহীর মোহনপুর উপজেলার কেশরহাট এলাকার মোনতাজুর রহমানের মেয়ে। তিনি বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্মেসি বিভাগের দ্বিতীয় সেমিস্টারের শিক্ষার্থী।

আনিকা খাতুনরা তিন ভাইবোন। মায়ের সঙ্গে তারা নগরীর হিন্দুপাড়া এলাকার উজ্জল মণ্ডলের বাড়িতে ভাড়া থাকতেন। তার পিতা বিদেশে থাকেন। শনিবার দিবাগত রাতের যে কোন সময় ঘরের ফ্যানের সঙ্গে সে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন। রোববার দুপুর হয়ে যাওয়ার পরেও মেয়ে ঘুম না উঠায় তার মা তাকে ডাকতে যায়। অনেক ডাকাডাকির পরও দরজা না খুললে তিনি দরজার ফাঁক দিয়ে দেখেন মেয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে ঝুলে আছে। পরে বিকেলে পুলিশ গিয়ে দরজা ভেঙে লাশ উদ্ধার করে।

এদিকে মৃত্যুর আগে আনিকা খাতুন একটি সুইসাইড নোট লিখে যান। যাতে লেখা আছে ‘তার মৃত্যুর জন্য কেউ দায়ি নয় এবং কারণ হিসেবে তিনি উল্লেখ করেন আমি সবার কাছে অবহেলার পাত্রী। অবহেলা সইতে সইতে আমি ক্লান্ত। আর পারছিনা। এবার মুক্তি চাই। নি:শর্ত মুক্তি।’

বোয়ালিয়া থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) শাহাদাত হোসেন জানান, লাশ উদ্ধার করে থানায় নেয়া হয়েছে। পরিবারের লোকজনের কোনো অভিযোগ থাকলে সে অনুযায়ি ব্যবস্থা নেয়া হবে।