Ad Space

তাৎক্ষণিক

ঘষিয়াখালী নিয়ে কেন কথা বলেননি পরিবেশবিদরা : প্রধানমন্ত্রী

অক্টোবর ২৭, ২০১৬

সাহেব-বাজার ডেস্ক : রামপাল তাপ বিদ্যুৎকেন্দ্র নিয়ে আন্দোলনকারীদের উদ্দেশ্যে প্রশ্ন রেখে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জানতে চেয়েছেন, সুন্দরবন সংলগ্ন ঘষিয়াখালী চ্যানেল দীর্ঘদিন বন্ধ থাকলেও পরিবেশবিদরা তা নিয়ে কেন এতদিন  কোনো কথা বলেননি? বৃহস্পতিবার (২৭ অক্টোবর) সকালে গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে মংলা-ঘষিয়াখালী নৌ-চ্যানেল ও ড্রেজার উদ্বোধনকালে প্রধানমন্ত্রী এ কথা বলেন।

এর মাধ্যমে চালু হলো দীর্ঘদিন ধরে বন্ধ থাকা সুন্দরবন সংলগ্ন ঘষিয়াখালী নৌ-চ্যানেল। এ সময় মংলায় খাদ্যশস্য মজুদের জন্য ৫০ হাজার মেট্রিকটন ধারণ ক্ষমতার সাইলো, শিশুদের জন্য হেল্প লাইন কল সেন্টারও উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী।

শেখ হাসিনা বলেন, সুন্দরবনকে রক্ষা করতেই ঘষিয়াখালী চ্যানেল ড্রেজিং করে জাহাজ চলাচলের জন্য খুলে দেওয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, আমাদের পরিবেশবিদরা সুন্দরবন থেকে ১৪ কিলোমিটার দূরে আমরা পাওয়ার প্লান্ট করি সেটা নিয়ে তাঁরা কেঁদে মরে। কিন্তু এই যে ঘষিয়াখালী বন্ধ করে দেওয়া হলো এবং এর সঙ্গে ২৩৪টা সংযোগ খাল সেগুলোর মুখ বন্ধ করে চিংড়ি চাষ করা হলো এবং এই চিংড়ি চাষ করতে গিয়ে সেখানে অনেক গাছপালাও কেটে চিংড়ির ঘের করা হয়। ওদিকে ঠিক যে জায়গাটা বন্যপ্রাণির অভয় আশ্রম সেই জায়গাগুলো যে নষ্ট হলো- এটা নিয়ে আমাদের পরিবেশবিদদের কোনো টু শব্দ করতে আমি কিন্তু শুনি নাই। বা কখনো সুন্দরবন নিয়ে কোনো দুশ্চিন্তা করতেও আমি দেখি নাই। অথচ এটা ছিল সুন্দরবনের একেবারে ভেতরের ঘটনা।’