Ad Space

তাৎক্ষণিক

  • ‘আপত্তিকর’ কাজে বাধা দেয়ায় প্রহরীকে মারধর– বিস্তারিত....
  • বামশক্তি কনসোলিটেড হয়ে দাঁড়াতে না পারলে ফিল ইন দ্য ব্লাংক করে ফেলবে ধর্মীয় শক্তি : আবুল বারকাত– বিস্তারিত....
  • মধ্যম আয়ের দেশ গড়তে হলে ভ্যাটের বিকল্প নেই : ভূমিমন্ত্রী– বিস্তারিত....
  • নাটোরে নির্মাণের ৯ মাসেই ভেঙে পড়েছে কালভার্ট– বিস্তারিত....
  • নাটোরে ইয়াবাসহ চার যুবক আটক– বিস্তারিত....

ইতালির নাগরিক হত্যা মামলার বিচার শুরু

অক্টোবর ২৫, ২০১৬

সাহেব-বাজার ডেস্ক : ইতালির নাগরিক চেজারে তাভেল্লা হত্যা মামলায় বিএনপি নেতা এম এ কাইয়ুমসহ সাত জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করে বিচার শুরুর আদেশ দিয়েছেন আদালত। ঢাকার মহানগর দায়রা জজ আদালতের বিচারক কামরুল হোসেন মোল্লা মঙ্গলবার আলোচিত এই মামলায় ২৪ নভেম্বর সাক্ষ্যগ্রহণের দিন রেখেছেন।

এই আদালতের অতিরিক্ত পাবলিক প্রসিকিউটর শাহ আলম তালুকদার জানান, আদেশের সময় সাত আসামির মধ্যে কারাগারে থাকা পাঁচ জন হাজির ছিল। বাকি দুজন পলাতক রয়েছেন। এদিকে অভিযোগ গঠনের এই আদেশের বিরুদ্ধে হাই কোর্টে যাবেন বলে মামলার প্রধান আসামি কাইয়ুমের আইনজীবী সানাউল্লাহ মিয়া জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, “আমার মক্কেল এই ঘটনায় জড়িত না হলেও তাকে মামলার আসামি করা হয়েছে। এই চ্যালেঞ্জ করে হাই কোর্টে যাব।”

গত বছর ২৮ সেপ্টেম্বর কূটনৈতিক পাড়া গুলশানে ইতালীয় নাগরিক তাভেল্লাকে (৫১) গুলি করে হত্যা করা হয়। লেখক, প্রকাশক ও অনলাইন অ্যাক্টিভিস্টদের উপর জঙ্গি হামলার পর ওই ঘটনা আন্তর্জাতিক পর্যায়েও আলোড়ন তোলে।

হত‌্যাকাণ্ডের প্রায় এক মাস পর ২৬ অক্টোবর ঢাকা মহানগর বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক ও সাবেক ওয়ার্ড কমিশনার এম এ কাইয়ুমের ভাই আবদুল মতিন, তামজিদ আহম্মেদ রুবেল ওরফে শুটার রুবেল, রাসেল চৌধুরী ওরফে চাকতি রাসেল, মিনহাজুল আরেফিন রাসেল ওরফে ভাগ্নে রাসেল ও সাখাওয়াত হোসেন ওরফে শরীফকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

তাদের মধ‌্যে ভাগ্নে রাসেল, চাকতি রাসেল, শরীফ ও রুবেল আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন বলে পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছিল। চলতি বছর ২৮ জুন ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের পরিদর্শক (ডিবি) গোলাম রাব্বানী হাকিম আদালতে সাত জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দেন।

গ্রেফতার পাঁচজন ছাড়া বাকি দুই আসামি হলেন- বিএনপি নেতা কাইয়ুম এবং মুহাম্মদ সোহেল ওরফে ভাঙ্গারি সোহেল। মহানগর দায়রা জজ কামরুল হোসেন মোল্লা ২৪ অগাস্ট মামলাটি আমলে নিয়ে পলাতক দুই আসামি কাইয়ুম ও সোহেলের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন।