Ad Space

তাৎক্ষণিক

  • একুশের চেতনায় উদ্বুদ্ধ হয়ে কাজ করার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর– বিস্তারিত....
  • চার মাসেও শনাক্ত হয়নি লিপুর ঘাতকরা– বিস্তারিত....
  • মশার প্রকোপে অতিষ্ঠ রাবি শিক্ষার্থীরা– বিস্তারিত....
  • শিশু মেঘলা ও মালিহার হত্যাকান্ডের বিচারের দাবীতে মানবন্ধন– বিস্তারিত....
  • উপজেলা চেয়ারম্যানদের মূল্যায়নের অঙ্গীকার জেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের– বিস্তারিত....

বাঘায় জুয়ার আসরে সংঘাত অত:পর বাড়ি ভাংচুর

অক্টোবর ২৫, ২০১৬

নিজস্ব প্রতিবেদক, বাঘা : রাজশাহীর বাঘায় জুয়া খেলার ঘটনাকে কেন্দ্র করে দুই ব্যাক্তির মধ্যে সংঘাত অত:পর একটি মোটর সাইকেলসহ বাড়ি ভাংচুর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে। সোমবার রাতে উপজেলার বাস টার্মিনাল এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার পর স্থানীয় লোকজন আহত দুই জুয়াড়কে উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভর্তি করেছেন।

স্থানীয় লোকজন জানান, সোমবার (২৪-১০-১৬) রাত সাড়ে ৮ টার সময় বাঘা বাস টার্মিনালে বসে জুয়া খেলছিল চক ছাতারি গ্রামের সুলতান আলী ও বাস শ্রমিক ইউনিয়নের প্রচার সম্পাদক (ডাইভার) কামরুল ইসলাম। এ সময় তাদের মধ্যে প্রথমে বাক-বিতন্ডা ও পরে মারপিট এর ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় উভয় পক্ষ গুরত্বর আহত হয়। পরে স্থানীয় লোকজন তাদের উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভর্তি করেন।

এ দিকে মুহুর্তের মধ্যে এ খবর ছড়িয়ে পড়লে  কামরুলের পক্ষ নিয়ে তার আত্নীয় রুবেল, রনি, আজমল, ফারুক, মিটু এবং নাসির সহ প্রায় ১৫-২০ জনের একটি সংঘ্যবদ্ধ দল ধারালো অস্ত্র ও লাটি-সোটা নিয়ে তার বাড়িতে হামলা চালায়।

এ হামলায়  সুলতানের একটি মোটর সাইকেল ভাংচুর ও তার মেয়ে শিমা খাতুনের গলার চেইন (মালা) সহ ঘরের ডয়ার ভেঙ্গে ৫০ হাজার টাকা সিনতাই এর ঘটনা ঘটে বলে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়। যার সত্যতা স্বীকার করেন ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী গোলাম রহমান, শফিকুল ইসলাম ও হোসেন আলী ।

এ বিষয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে গিয়ে ডাইভার কামরুর ইসলামের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, আমি আহত হয়েছি এ খবর শুনে আমার লোকজন সুলতানের বাড়িতে হামলা করেছে শুনেছি। তবে জুয়া খেলার ঘটনা সঠিক নয়। তাস খেলতে গিয়ে তর্ক বিতর্কের এক পর্যায় এই সংঘাত হয়েছে।

বাঘা থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আলী মাহামুদ বাড়ি ভাংচুরের সত্যতা স্বীকার করে জানান, এ বিষয়ে  উভয় পক্ষ থেকে অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।