Ad Space

তাৎক্ষণিক

  • নাটোরে বৈশাখী মেলার নামে জুয়া খেলা বন্ধ করেছে জেলা প্রশাসন– বিস্তারিত....
  • রাবির আবাসিক হলে এইচএসসির অমুল্যায়িত খাতা!– বিস্তারিত....
  • জাতীয় পার্টি রাজনীতিতে বড় ফ্যাক্টর : এরশাদ– বিস্তারিত....
  • নাটোরে বৈশাখী মেলায় প্রকাশ্যে জুয়া ও অশ্লীল নৃত্য– বিস্তারিত....
  • প্রাণ ও প্রকৃতির প্রতি সহিংসতার বিরুদ্ধে নগরীতে প্রকৃতি বন্ধন– বিস্তারিত....

ইমরান পরশ-এর দুটি ছড়া

সেপ্টেম্বর ১৭, ২০১৬

হিপ হিপ হুর রে

 

হিপ হিপ হুর রে হিপ হিপ হুর

মামাদের বাগানে আম ভরপুর

ট্রেনে চড়ে যাচ্ছি

বুট ভাজা খাচ্ছি

সাথে আরো লাচ্ছি

ভারি মজা পাচ্ছি

ঢাকা থেকে উত্তরে সেই রংপুর

হিপ হিপ হুর রে হিপ হিপ হুর।

 

গাছপালা দৌড়ে

শাড়ি আটেপৌরে–

কৃষানের বৌ রে

ঘরে তোলে মৌ রে

দৃশ্যটা দেখতে চলো মধুপুর

হিপ হিপ হুর রে হিপ হিপ হুর।

 

সর্পিল ঢঙ্গে

ট্রেন চলে বঙ্গে

ছোট মামা সঙ্গে

উঠে গেছি টঙ্গে

মনে তাই বেজে ওঠে আনন্দ সুর

হিপ হিপ হুর রে হিপ হিপ হুর।

 

মন ছুটে যায় ছেলেবেলায়

 

আবার যদি পেতাম ফিরে রঙিন ছেলেবেলা

ঘুড্ডি নাটাই প্রজাপতি আর বোশেখি মেলা।

এক দৌড়ে যেতাম ছুটে মাঠের পারের বাড়ি

মেঘবালিকার সঙ্গে দিতাম এক জনমের আড়ি।

 

ঘাসফড়িংয়ের পেছন ছুটে বিকেল হতো পার

ছেলেবেলার দিনগুলি কী আহা চমৎকার।

নরম রোদের আলতো ছোঁয়ায় নানান পিঠের স্বাদে

মায়ের কাছে যেতাম ছুটে আহা কী আহ্লাদে।

 

মন পবনের নাও ভাসিয়ে দিতাম পুকুর জলে

গাঙ শালিকের ডিম এনেছি জানো কী কৌশলে!

জংলাডোরে শাড়ি পরা বাড়িটির মাঝখানে

নিকানো রোদ বুক চেতিয়ে উঠতো সে উঠানে।

 

জল থইথই খাল পেরোতাম এক সাঁতারে যেই

মায়ের সেকী বারণ, খোকা, যাসনে খোকা এই..।

মায়ের শাসন বারণ ভাঙা দুরন্ত সেই দুপুর

পুল থেকে যে লাফিয়ে মনে বাজত খুশির নূপুর।

 

জলরঙা ঢেউ আছড়ে পড়ে ভাঙত কূলের পাড়

মন ছুটে যায় ছেলেবেলায় আজও বারংবার।

অলস রাতে বাঁশ বাগানে জোনাক দেখায় পথ

হাতছানি দেয় ক্রমাগত সোনালি ভবিষ্যত।