রাত ১:০১ বৃহস্পতিবার ২১ নভেম্বর, ২০১৯


৩৪ বছর পর এমন লজ্জায় ভারত

নিউজ ডেস্ক | সাহেব-বাজার২৪.কম
আপডেট : December 10, 2017 , 4:22 pm
ক্যাটাগরি : খেলাধুলা
পোস্টটি শেয়ার করুন

সাউথ আফ্রিকা সফরের আগে অশনি সংকেত ভারতের। ধর্মশালয়ে ভালোই ঠান্ডা পড়েছে।ছবির মতো এই স্টেডিয়ামে চোখে সর্ষে ফুল দেখলেন ভারতীয় ব্যাটসম্যাসরা।  শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে দুই অঙ্কের ঘরে পৌঁছতে পারেননি দলটির প্রথম পাঁচ ব্যাটসম্যানের কেউই।ব্যাটসম্যানদের যাওয়া আসার মিছিলে ধ্বংসাবশেষে দাঁড়িয়ে `ওয়ান ম্যান আর্মি’ হয়ে একাই লড়েছেন মহেন্দ্র সিং ধোনি। তার ৬৫ রানের বীরোচিত ইনিংস লজ্জার হাত থেকে বাঁচিয়েছে ভারতকে।প্রথম ওয়ানডে ম্যাচে স্বাগতিকরা  অলআউট হওয়ার আগে ১১২ রান করেছে।

সর্বনিম্ন স্কোরের লজ্জা এড়ালেও ৩৪ বছরের পুরনো লজ্জায় ঠিকই ডুবতে হয়েছে ভারতকে। ভারত ওয়ানডেতে ২০ রানের কমে ৫ উইকেট হারিয়েছিল সেই ১৯৮৩ সালে। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ১৭ রানে পাঁচজন ব্যাটসম্যান সেদিন আউট হয়েছিলেন। রোববার শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ১৬ রানেই ৫ উইকেট খোয়াল ভারত। একটা সময় ২৯ রানে ৭ উইকেট হারিয়ে ওয়ানডেতে সর্বনিম্ন স্কোরের লজ্জাতেই পড়তে যাচ্ছিল তারা।

নুয়ান প্রদীপ ও সুরাঙ্গা লাকমালের গতির সামনে অসহায় আত্মসমর্পণ করে ভারতের টপঅর্ডার। তাসের ঘরের মতো ভেঙে পড়ে ব্যাটিং। ধোনি লড়াই চালিয়ে ৬৫ রান করেন ৮৭ বল খেলে। আর কোনও ভারতীয় ব্যাটসম্যানই ক্রিজে বেশিক্ষণ টিকতে পারেননি। দু’অঙ্কের রান করেছেন আর কেবল হার্দিক পান্ডিয়া (১০) ও কুলদীপ যাদব (১৯)।

সুরাঙ্গা লাকমাল ও অ্যাঞ্জলো ম্যাথুসের দারুণ বোলিংয়ে ভারতের বিশ্বখ্যাত ব্যাটিং লাইনআপ গুঁড়িয়ে গিয়েছে। এক প্রান্ত থেকে টানা ১০ ওভার বোলিং করে সুরঙ্গা লাকমাল ১৩ রান দিয়ে ৪ উইকেট নিয়ে হয়েছেন  দিনের সেরা  বোলার।

শুরুটা করেছিলেন ম্যাথুস। ধর্মশালায় দিনের দ্বিতীয় ওভারের শেষ বলে শেখর ধাওয়ানকে ০  রানে এলবিডব্লিউয়ে ফেরান অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুস। পঞ্চম ওভারের লাকমালের উেইকেটের পেছনে ক্যাচ দিয়ে সিরিজে ভারতের অধিনায়ক রোহিত শর্মাকে ২ রানে ফেরান লাকমাল।

নবম ওভারে লাকমালেরই শিকার দীনেশ কার্তিক (০)। ১৩তম ওভারে মানিষ পাণ্ডেকে ২ রানে আউট করেন এই লঙ্কান পেসার। পরের ওভারে শ্রেয়াস আয়ারকে ৯ রানে বোল্ড করে প্যভিলিয়নের পথ দেখান নুয়ান প্রদীপ। তিনিই হার্দিককেও একই পথ দেখান।

পরে ভুবনেশ্বরকে ফেরান লাকমাল। কুলদীপকে আউট করেন আকিলা ধনঞ্জয়া। আর জসপ্রীত বুমরাহকে ফিরিয়ে চাপ ধরে রাখেন সুচিত পাথিরানা। থিসারা পেরেরার বলে ছক্কা হাঁকাতে গিয়ে আউট হন শেষ ব্যাটসম্যান ধোনি।

একদিনের ক্রিকেট থেকে ছুটি নিয়েছেন বিরাট কোহলি। তার জায়গায় দলকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন রোহিত শর্মা। এদিন টসে জিতে বোলিং নেন শ্রীলঙ্কার অধিনায়ক থিসারা পেরেরা। কোহলির অনুপস্থিতিতে দলে সুযোগ পেয়েছেন শ্রেয়াস আইয়ার।

শ্রীলঙ্কার সঙ্গে সিরিজের পরই সাউথ আফ্রিকায় দীর্ঘ সফরে যাবে ভারত। সেখানে সবুজ পিচে খেলতে হবে। তার আগে দেশের মাটিতেই বেহাল দশা বিশ্বসেরা ব্যাটিং লাইনআপের! শ্রীলঙ্কা তুলনায় প্রোটিয়াদের পেস ব্যাটারি তো আরও ভয়ঙ্কর। কোহলিদের তাই কঠিন সময়ই অপেক্ষা করছে।