সন্ধ্যা ৭:৩০ মঙ্গলবার ১৯ নভেম্বর, ২০১৯


সামরিক বাহিনীর সংবিধান পাল্টাবেন মিয়ানমারের প্রেসিডেন্ট

নিউজ ডেস্ক | সাহেব-বাজার২৪.কম
আপডেট : March 30, 2018 , 6:15 pm
ক্যাটাগরি : বিদেশ
পোস্টটি শেয়ার করুন

সাহেব-বাজার ডেস্ক : মিয়ানমারের নতুন প্রেসিডেন্ট উইন মিন্ট বলেছেন, তিনি দেশের সেনাবাহিনীর লেখা সংবিধান সংশোধন করবেন। আজ শুক্রবার মিয়ানমারের পার্লামেন্টে দেওয়া উদ্বোধনী ভাষণে এই প্রতিশ্রুতি দেন উইন মিন্ট।

মিয়ানমারের গণতন্ত্রপন্থী নেত্রী অং সান সু চির ঘনিষ্ঠ সহচর উইন মিন্ট। সামরিক শাসন আমলে তিনি রাজনৈতিক বন্দী ছিলেন। গত বুধবার তিনি প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন। হঠাৎ করেই প্রেসিডেন্ট থিন কিউ পদত্যাগ করলে মিন্ট প্রেসিডেন্ট হন। ২০১৫ সালে সু চির দল ন্যাশনাল লিগ ফর ডেমোক্রেসি (এনএলডি) দীর্ঘ সেনাশাসনের পর অনুষ্ঠিত নির্বাচনে বিপুল বিজয় পায়।

নির্বাচনে বিজয় লাভ করলেও সাংবিধানিক বাধার কারণে প্রেসিডেন্ট হতে পারেননি সু চি।

সংবিধান অনুযায়ী, মিয়ানমারের কোনো নাগরিক বিদেশিকে বিয়ে করলে ওই সংবিধানে তিনি প্রেসিডেন্ট হতে পারবেন না। সু চির স্বামী ব্রিটিশ নাগরিক। তাই তিনি প্রেসিডেন্ট হতে পারেননি।

এ পরিস্থিতির পরিপ্রেক্ষিতে সু চির জন্য স্টেট কাউন্সেলর নামে একটি পদ সৃষ্টি করা হয়। বলা হয়, তিনি প্রেসিডেন্টেরও ওপরে।

নতুন প্রেসিডেন্ট উইন মিন্ট সোজা কথার মানুষ হিসেবে পরিচিত। আজ পার্লামেন্টের উদ্বোধনী অধিবেশনেও সংবিধান পরিবর্তনের কথা বলে তার সহজাত অবস্থানের জানান দিলেন। তিনি বলেন, তার কাজ হবে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা, জাতীয় ঐক্য পুনঃস্থাপন এবং সংবিধান সংশোধন।

এসবি/এআইআর