বিকাল ৩:৫৯ সোমবার ১৬ ডিসেম্বর, ২০১৯


লতার ব্যাপারে আর কিছু বলতে চায় না পরিবার

নিউজ ডেস্ক | সাহেব-বাজার২৪.কম
আপডেট : নভেম্বর ২১, ২০১৯ , ৬:৩৬ অপরাহ্ণ
ক্যাটাগরি : বিনোদন
পোস্টটি শেয়ার করুন

সাহেব-বাজার ডেস্ক : মুম্বাইর ব্রিচ ক্যান্ডি হাসপাতালে এখনো নিবিড় পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন উপমহাদেশের কিংবদন্তি সংগীতশিল্পী লতা মঙ্গেশকর। আজ বৃহস্পতিবার পরিবারের পক্ষ থেকে তাঁর ভাইয়ের মেয়ে রচনা শাহ টাইমস অব ইন্ডিয়াকে বলেছেন, ‘লতা মঙ্গেশকর আগের চেয়ে অনেকটা ভালো আছেন। তাঁকে নিয়ে আমরা আর কোনো মন্তব্য করতে চাই না।’ তিনি আরও বলেছেন, ‘পারিবারিক কিছু গোপনীয়তা থাকে, আশা করছি আপনারা এই ব্যাপারগুলোকে সম্মান জানাবেন।’ একই সঙ্গে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ লতা মঙ্গেশকরের স্বাস্থ্যের ব্যাপারে সর্বশেষ কোনো তথ্য দেওয়ার ব্যাপারে অপারগতা প্রকাশ করেছে।

হাসপাতালে গিয়ে লতা মঙ্গেশকরকে দেখেছেন, তাঁর চিকিৎসা ও সর্বশেষ শারীরিক অবস্থার ব্যাপারে খোঁজখবর নিয়েছেন চলচ্চিত্র পরিচালক মধুর ভান্ডারকর। সেখান থেকে ফিরে ইনস্টাগ্রামে গতকাল বুধবার তিনি লিখেছেন, ‘লতা মঙ্গেশকরের অবস্থা এখন অনেকটা ভালো। তিনি স্থিতিশীল আছেন। চিকিৎসায় সাড়া দিচ্ছেন। তিনি দ্রুত সম্পূর্ণ সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরবেন, এমনটা সবাই আশা করছেন।’

বোন আশা ভোসলে ভারতের সংবাদমাধ্যমকে বলেছেন, ‘ভালো আছেন লতা দিদি। হাসপাতালের চিকিৎসায় সাড়া দিয়েছেন। অবস্থার অনেকটাই উন্নতি হয়েছে তাঁর।’ আরেক বোন উষা মঙ্গেশকর বলেছেন, ‘দিদি আগের থেকে অনেকটাই ভালো আছেন। চিকিৎসকেরা তাঁকে পর্যবেক্ষণে রেখেছেন। তাই তাঁকে এখনো আইসিইউতে রাখা হয়েছে। যত দিন না তাঁরা অনুমতি দিচ্ছেন, তত দিন তাঁকে হাসপাতালেই রাখা হবে। চিকিৎসকদের মত নিয়ে তবেই বাড়িতে নিয়ে যাওয়া হবে তাঁকে।’

লতা মঙ্গেশকরের চিকিৎসায় পরামর্শ দেওয়ার জন্য যুক্তরাষ্ট্রের কয়েকজন চিকিৎসক মুম্বাইয়ে আসেন। জানা গেছে, যুক্তরাষ্ট্রের ক্লিভল্যান্ড ক্লিনিকের চিকিৎসকদের এই দলটি ব্রিচ ক্যান্ডি হাসপাতালে গিয়ে লতা মঙ্গেশকরকে দেখেছে, তাঁর চিকিৎসার ব্যাপারে খোঁজখবর নিয়েছে এবং প্রয়োজনীয় পরামর্শ দিয়েছে। গত সোমবার খবরটি টুইটারে জানিয়েছেন আরপিজি এন্টারপ্রাইজেসের চেয়ারম্যান হর্ষ গোয়েঙ্কা। তিনি টুইটারে লিখেছেন, ‘চিকিৎসকদের একটি দল আজ লতা মঙ্গেশকরকে দেখতে এসেছে। আমরা আনন্দের সঙ্গে জানাচ্ছি, তাঁর স্বাস্থ্যের উন্নতি হচ্ছে।’

এদিকে ফেসবুক, ইনস্টাগ্রাম আর টুইটারে অনেকেই এখনো লতা মঙ্গেশকরের মৃত্যুর খবর প্রচার করে তাঁর স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানাচ্ছেন। এ ব্যাপারে রচনা শাহ বার্তা সংস্থা পিটিআইকে বলেছেন, ‘গুজবে কান দেবেন না। তিনি ভালো আছেন। তাঁর অবস্থা স্থিতিশীল।’

লতা মঙ্গেশকরের পরিবারের পক্ষ থেকে এসব গুজব ছড়ানো বন্ধ করার জন্য অনুরোধ করেছেন অনুশা শ্রীনিবাসন আইয়ার। টুইটারে তিনি লিখেছেন, ‘প্লিজ, গুজব ছড়ানো বন্ধ করুন। লতা দিদির অবস্থা আপাতত ভালো এবং উন্নতিও হচ্ছে। তাঁর সুস্থতার জন্য আসুন সবাই মিলে প্রার্থনা করি।’

পিটিআইকে মুম্বাইর ব্রিচ ক্যানডি হাসপাতাল থেকে আগেই জানানো হয়েছে, লতা মঙ্গেশকরের পুরোপুরি সুস্থ হতে কিছুটা সময় লাগবে। তিনি নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত, তাঁর ফুসফুসে এখনো সংক্রমণ রয়েছে।

১১ নভেম্বর রাতে হঠাৎ শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় লতা মঙ্গেশকরকে ব্রিচ ক্যানডি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এরপর দ্য হিন্দু জানায়, হাসপাতালে সিনিয়র মেডিকেল অ্যাডভাইজার ফারুখ ই উদওয়াড়িয়ার তত্ত্বাবধানে আইসিইউতে ভেন্টিলেটর সাপোর্টে রাখা হয়েছে লতা মঙ্গেশকরকে।

গত ২০ সেপ্টেম্বর ৯০ বছর পূর্ণ করেছেন লতা মঙ্গেশকর। ২০০১ সালে তাঁকে ভারতের সর্বোচ্চ রাষ্ট্রীয় সম্মান ‘ভারতরত্ন’ দেওয়া হয়। ১৯৮৯ সালে তিনি ‘দাদাসাহেব ফালকে পুরস্কার’ পান। সাত দশক ধরে ৩০ হাজারেরও বেশি গান গেয়েছেন তিনি।

এসবি/জেআর