রাত ১০:২১ বৃহস্পতিবার ২১ নভেম্বর, ২০১৯


রাজশাহী মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা

নিউজ ডেস্ক | সাহেব-বাজার২৪.কম
আপডেট : June 22, 2019 , 10:12 pm
ক্যাটাগরি : রাজশাহীর সংবাদ
পোস্টটি শেয়ার করুন

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজশাহী জেলা মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের আহ্বায়ক কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করা হয়েছে। শনিবার এই কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করে রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটনকে শ্রমিক ইউনিয়নের সার্বিক দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। মেয়র পূর্ণাঙ্গ আহ্বায়ক কমিটি গঠনের মাধ্যমে মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের নির্বাচন আয়োজনে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন।

গতকাল দুপুরে নগরভবনের সিটি হলরুমে জেলা মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের সাথে মতবিনিময় সভায় এ ঘোষণা দেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পকির্ত স্থায়ী কমিটির সভাপতি ও বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের সভাপতি শাজাহান খান-এমপি এ ঘোষণা দেন।

জানা গেছে, ২০১৭ সালের ২৪ মে জেলা মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের নির্বাচনের ভোটগ্রহণ করা হয়। ভোট গণনাকালে দেখা যায়, সভাপতি পদের প্রার্থী রফিকুল ইসলাম প্রায় দুই হাজার ২০০ ভোট পেয়েছেন। তার প্রতিদ্বন্দ্বী কামাল হোসেন রবি পেয়েছেন প্রায় ৩০০ ভোট। আর সাধারণ সম্পাদক পদের প্রার্থী মাহাতাব হোসেন চৌধুরী পান প্রায় ২ হাজার ৪০০ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আনিসুর রহমান পান প্রায় সাড়ে তিনশ ভোট।
সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদের ভোট গণনা শেষ হলেই বহিরাগত একটি সন্ত্রাসী বাহিনী ভোটকেন্দ্রে হামলা চালায়। এ সময় গোলাগুলির ঘটনাও ঘটে। ব্যালট বাক্স ছিনতাই করা হয়। এতে বাধা দিতে গেলে নির্বাচন কমিশনারদের আহত করা হয়। এ ধরনের পরিস্থিতিতে নির্বাচন স্থগিত ঘোষণা করা হয়। এর ফলে মোটর শ্রমিক ইউনিয়ন অভিভাবকহীন হয়ে পড়ে। এ অবস্থায় ২১ সদস্যের একটি আহ্বায়ক কমিটি গঠন করে দেয়া হয়। কিন্তু এই কমিটি ইতিমধ্যেই দুই বছর পার করে। সম্প্রতি এ নিয়ে সাহেব-বাজার২৪.কমে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়। এরপরই সমস্যা সমাধানে রাজশাহী এলেন সড়ক পরিবহন নেতা শাজাহান খান এমপি।

মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে সাবেক নৌপরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খান বলেন, রাজশাহী জেলা মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের আহ্বায়ক কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করা হলো। নতুন নির্বাচন সম্পন্ন না হওয়া পর্যন্ত এটির সার্বিক দেখভাল করছেন মেয়র খায়রুজ্জামান লিটন ভাই। তিনি নির্বাচন আয়োজনের ব্যবস্থা করবেন।

শাহাজাহান খান আরো বলেন, সড়কে কোন চাঁদাবাজি চলবে না। ইতোমধ্যে সেই নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। চালকদের দক্ষতা বাড়াতে প্রশিক্ষণ প্রদান এবং কল্যানে বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে বর্তমান সরকার। আগামীতে প্রশিক্ষণের মাধ্যমে এক লাখ দক্ষ চালক তৈরি এবং এক হাজার পরিদর্শক তৈরির উদ্যোগ নিয়েছে সরকার।

সভায় সভাপতির বক্তব্যে মেয়র খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, সারাদেশে চোখ ধাঁধানো উন্নয়ন করছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। চমৎকার প্রশস্ত রাস্তাঘাট হচ্ছে, শিক্ষা, স্বাস্থ্য, অবকাঠামোসহ সকল ক্ষেত্রে উন্নয়ন হচ্ছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর হাতকে শক্তিশালী করতে আমাদের সবাইকে কাজ করতে হবে।

মতবিনিময় সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার সুজায়েত ইসলাম ও জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ইফতে খায়ের আলম। অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন- বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক ওসমান আলী, সহ-সভাপতি আব্দুর রহিম বক্স দুদু, জেলা মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের সদ্য বিলুপ্ত কমিটির আহ্বায়ক কামাল হোসেন রবি, সাবেক সাধারণ সম্পাদক মাহাতাব হোসেন চৌধুরী প্রমুখ।

এসবি/আরআর/এআইআর