সন্ধ্যা ৭:৩৮ মঙ্গলবার ১৯ নভেম্বর, ২০১৯


রাজশাহী কলেজে দেশের প্রথম শহীদ মিনারটি নির্মিত হলে পাল্টে যাবে রাজশাহীর চেহারা: বাদশা

নিউজ ডেস্ক | সাহেব-বাজার২৪.কম
আপডেট : July 3, 2018 , 5:38 pm
ক্যাটাগরি : রাজশাহীর সংবাদ
পোস্টটি শেয়ার করুন

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজশাহী সদর আসনের সংসদ সদস্য জননেতা ফজলে হোসেন বাদশা বলেছেন, ভাষা আন্দোলনে শহীদদের স্মরণে রাজশাহী সরকারি কলেজ হোস্টেল সম্মুখে নতুন করে নির্মিত হতে যাচ্ছে দেশের প্রথম শহীদ মিনার। যখন পাথরে খোদাই করে নতুন আঙ্গিকে শহীদ মিনারটি নির্মিত হবে তখন পাল্টে যাবে রাজশাহীর চেহারা। গত সোমবার বিকেলে রাজশাহী কলেজ সম্মেলন কক্ষে শহীদ মিনারের নকশা হস্তান্তর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

জননেতা বাদশা আরো বলেন, ভাষা আন্দোলন করতে গিয়ে অনেকেই শহীদ হন। কিন্তু রাজশাহীতে যিনি প্রথম শহীদ হন তা অনেকেরই অজানা। শহীদ মিনারটি নির্মিত হলে ভাষা আন্দোলনে রাজশাহীর ঐতিহাসিক ভূমিকার কথা দেশের মানুষ জানবে। তিনি বলেন, অচিরেই নির্মিত হতে যাচ্ছে এই শহীদ মিনারটি। সেখানে ভাষা আন্দোলন করতে গিয়ে পাক পুলিশ বাহিনীর হাতে প্রথম শহীদ হন যে আন্দোলনকারীরা সে সময় মাটি ও ইট দিয়ে গাঁথা শহীদ মিনারটি সেই শহীদদের স্মৃতিকে ধরে রেখেছিল। এখন নতুন নকশা মাফিক নির্মিত হচ্ছে উক্ত শহীদ মিনারটি। তিনি আরো বলেন নগরীতে ৫-৬টি বস্তির উন্নয়ন হবে, শাহমখদুম (র:) মাজার মসজিদের গেট রাজশাহী স্কুল-কলেজের উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছি। এমন কোন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নেই হাতের ছোঁয়া লাগেনি।

রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের প্রধান প্রকৌশলী আশরাফুল হক বলেন, শহীদ মিনারে ৫২ ফুট উঁচু টাওয়ারে দুটি স্তম্ভ থাকছে যাতে মায়ের বুকে দুটি সন্তানকে ধারণ করে রাখার দৃশ্য দেখানো হয়েছে। তার মধ্যে পাক পুলিশ বাহিনীর গুলিতে তিনটি ফুটোও রয়েছে। তিনি আরও বলেন, রাজশাহী সদর আসনের সংসদ সদস্য জননেতা ফজলে হোসেন বাদশার বরাদ্দ থেকে ৫০ লক্ষ টাকা ব্যয়ে এটি নির্মিত হতে যাচ্ছে। রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন এর নির্মাণ কাজ সম্পন্ন করবে। প্রধান প্রকৌশলৗ আশরাফুল হক জননেতা ফজলে হোসেন বাদশা এমপির হাত দিয়ে নকশাটি রাজশাহী কলেজের অধ্যক্ষ মোহা. হবিবুর রহমানের হাতে তুলে দেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী কলেজের উপাধ্যক্ষ প্রফেসর আল ফার্বক চৌধুরী, ওয়ার্কার্স পার্টির মহানগর সভাপতি লিয়াকত আলী লিকু, সাধারণ সম্পাদক দেবাশীষ প্রামাণিক দেবুসহ রাজশাহী কলেজের শিৰকবৃন্দ।

এসবি/এআইআর