ভোর ৫:২৯ রবিবার ১৭ নভেম্বর, ২০১৯


রাজশাহীতে জিমে হামলা ভাঙচুরের অভিযোগ

নিউজ ডেস্ক | সাহেব-বাজার২৪.কম
আপডেট : October 10, 2018 , 9:35 pm
ক্যাটাগরি : রাজশাহীর সংবাদ
পোস্টটি শেয়ার করুন

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজশাহী নগরীর একটি জিমে হামলা চালিয়ে ভাঙচুরের অভিযোগ পাওয়া গেছে। বুধবার বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে নগরীর ঘোড়ামারা এলাকায় বোয়ালিয়া থানার সামান্য পেছনে ‘বিসমিল্লাহ ক্লাফ ফিটনেস’ নামের এই জিমটিতে হামলা চালানো হয়।

নগরীর আমচত্বর এলাকার সাইমা খাতুন (২৮) নামে এক নারীর নেতৃত্বে তিনজন যুবক এই হামলা চালান বলে অভিযোগ জিমের পরিচালক সৈয়দ আরমানের। এ নিয়ে তিনি নগরীর বোয়ালিয়া থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেছেন। তবে আরমানের নামেও পাল্টা আরেকটি অভিযোগ করেছেন সাইমা খাতুন।

সৈয়দ আরমান জানান, চার মাস আগে সাইমা তার জিমে শরীরচর্চা করতেন। বৃষ্টি নামের এক মেয়ের সঙ্গে ঝামেলা করে তিনি জিম ছাড়েন। এরপর থেকে বৃষ্টিকে জিমে শরীরচর্চা করতে না দেওয়ার জন্য তিনি চাপ দিয়ে আসতেন। কিন্তু আরমান একজনের জন্য অন্যজনকে জিমে আসতে বারণ করেননি। এর জের ধরেই হামলা চালানো হয় বলে জানান আরমান।

তিনি বলেন, বিকালে জিমে শরীরচর্চা করছিলেন মেয়েরা। সেখানে কোনো পুরুষের প্রবেশ নিষেধ। কিন্তু সাইমা তিনজন যুবককে নিয়ে জিমে ঢুকে পড়েন। তারা বৃষ্টিকে মারধর শুরু করেন। এ সময় তারা মেয়েদের ভিডিও করতে থাকেন। এতে বাধা দিতে গেলে আরমান এবং তার স্ত্রী শাহনাজ খানমকে শারিরীকভাবে লাঞ্ছিত করা হয়। এ সময় প্রায় দুই লাখ টাকা মূল্যের একটি জগিং মেশিন ভেঙে ফেলেন হামলাকারীরা।

সৈয়দ আরমান জানান, হামলাকারীরা তাদের মারধর ও ভাঙচুর শুরু করলে তিনি থানায় ফোন দেন। এগিয়ে আসেন আশপাশের লোকজনও। তখন তারা পালিয়ে যান। যাওয়ার সময় তারা জিম থেকে মেয়েদের শরীরচর্চা করার ধারণকৃত ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে গেছেন।

এ নিয়ে তিনি থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেছেন। এখন শুনছেন, তার অভিযোগের পর সাইমা খাতুনও থানায় গিয়ে তার নামে পাল্টা একটি মিথ্যা অভিযোগ দিয়েছেন। আরমান জানান, পুলিশ এখন তাকে মিমাংসা করতে বলছে। কিন্তু তিনি মিমাংসা করবেন না।

বোয়ালিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমান উল্লাহ বলেন, ঘটনা একটা ঘটেছে। দুই পক্ষই অভিযোগ দিয়েছে। এখনও তদন্ত করে দেখা হয়নি। তদন্ত করে এ ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তবে এখনই কাউকে মিমাংসার কথা বলা হয়নি বলে দাবি করেন ওসি।

এসবি/আরআর/এসএস