দুপুর ২:৩৮ শনিবার ১৮ জানুয়ারি, ২০২০


পুঠিয়ায় পল্লী বিদ্যুতের সীমাহীন লোডশেডিংয়ে অতিষ্ট জনজীবন

নিউজ ডেস্ক | সাহেব-বাজার২৪.কম
আপডেট : সেপ্টেম্বর ১৯, ২০১৮ , ২:৫৫ অপরাহ্ণ
ক্যাটাগরি : রাজশাহীর সংবাদ
পোস্টটি শেয়ার করুন

পুঠিয়া প্রতিনিধি : আশ্বিনের তাপদাহ আর বিদ্যুতের লোডশেডিং এর কারণে পুঠিয়া উপজেলার বিশেষ করে বানেশ্বর এলাকার জনজীবন অতিষ্ট হয়ে উঠেছে। বিদ্যুতের আশায় দীর্ঘ প্রতীক্ষার যেন শেষ হচ্ছেনা। কখন আসবে সেই কাঙ্খিত বিদ্যুৎ।দিনে-রাতে ২৪ ঘন্টার মধ্যে ৭/৮ ঘন্টার বেশী এ অঞ্চলের গ্রাহকরা বিদ্যুৎ পাচ্ছেনা।

পূর্বের থেকে কোন প্রকার সতর্কি করণ নোটিশ বা মাইকিং ছাড়াই গত সোমবার একটানা ৯ ঘন্টা বন্ধ রাখেন বিদ্যুৎ সরবরাহ। বিদ্যুতের অভাবে ঘরে-বাইরে, অফিস, স্কুল- কলেজ, ব্যবসা প্রতিষ্ঠানসহ সর্বত্র যেন এক রকম অস্থিরতা।

অভিযোগ রয়েছে, নাটোর পল্লী বিদ্যুতের কর্তাবাবুরা বিপুল জনগোষ্টিকে অন্ধকারে রেখে বিদ্যুৎ সাশ্রয় দেখিয়ে উদ্ধর্তন কর্তৃপক্ষের নিকট থেকে বাহবা কুড়িয়ে পুরুস্কার হাতিয়ে নিতে লোডশেডিং করে থাকে। তবে তীব্র লোডশোডিংয়ের কারণে বিদ্যুৎ ব্যবহার কমলেও বিলের বোঝা দিন দিন বিল বৃদ্ধি পাচ্ছে বলে গ্রাহকদের অভিযোগ রয়েছে।

একাধিকবার লোডশেডিংয়ের ফলে বিপর্যয়ের মুখে পড়েছে কলকারখানাসহ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলো। দিনে কয়েক ঘন্টাব্যাপী লোডশেডিং দিয়ে শুরু হয় প্রথম ধাপ, সন্ধ্যার পরে দ্বিতীয় ধাপে কয়েকবার লোডশেডিং এবং শেষবারের মত একটানা কয়েক ঘন্টা গভীর রাত পর্যন্ত চলতে থাকে বিদ্যুৎ দেয়া নেয়ার খেলা।

আর এ কারণে মানুষের স্বাভাবিক জীবনযাত্রা হচ্ছে ব্যাহত।এতে চরম দূর্ভোগে রয়েছেন এলাকাবাসী। এ বিষয়ে জানতে চাইলে পুঠিয়া পল্লী বিদ্যুৎ অফিসের জোনাল ম্যানেজার জানান, মহাসড়কের দুই পার্শ্বের গাছ কাটার কারণে দিনের বেলা লোডশেডিং হচ্ছে। লোডশেডিং দুই-এক দিনের মধ্যে থাকবে না।

এসবি/আরআই