রাত ৯:৩৬ বৃহস্পতিবার ২১ নভেম্বর, ২০১৯


তরুণীকে ‘ধর্ষণের পর’ গলা কেটে হত্যা

নিউজ ডেস্ক | সাহেব-বাজার২৪.কম
আপডেট : January 1, 2018 , 4:07 pm
ক্যাটাগরি : শিল্প ও বাণিজ্য
পোস্টটি শেয়ার করুন

বগুড়ায় এক তরুণীর গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার হয়েছে। পারিপার্শ্বিক অবস্থা দেশে পুলিশের ধারণা, ধর্ষণের পর ওই তরুণীতে হত্যা করা হয়েছে। স্থানীয়দের কাছ থেকে খবর পেয়ে মরদেহ উদ্ধার করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীটি।সোমবার সন্ধ্যার পর বগুড়া সদর উপজেলার মালগ্রাম এলাকায় ঘটনাটি ঘটেছে। পড়শিরা প্রথমে বিষয়টি টের পেয়ে পুলিশে খবর দেয় এবং বগুড়া সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এমদাদ হোসেনের নেতৃত্বে পুলিশ সদস্যরা ঘটনাস্থলে যায়।

স্থানীয়রা জানায়, ওই তরুণীর বাবা একজন ছোট হোটেল ব্যবসায়ী। হোটেলের কাজে মেয়েটির বাবা এবং মা দুইজনই ছিলেন ব্যস্ত। আর তরুণীটি বাড়িতে একা ছিলেন। এ সময় দুর্বৃত্তরা ঘরে ঢুকে ধারাল অস্ত্র দিয়ে মেয়েটির গলা কেটে হত্যা করে। খবর পেয়ে মেয়েটির বাবা ও মা ঘটনাস্থলে আসেন। এ সময় তারা কান্নায় ভেঙে পড়েন।

পড়শিরা ঘটনাটি টের পেয়ে ঘরে ঢুকে তরুণীটির রক্তমাখা শরীর দেখতে পায়। প্রত্যক্ষদর্শী একজন জানান, মেয়েটির শরীরে কোনো কাপড় ছিল না। এতেই তারা ধারণা করছেন, তাকে ধর্ষণের পর হত্যা করা হয়েছে।

একই ধারণার কথা বলেছেন বগুড়া সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এমদাদ হোসেন। তিনি বলেন, ‘মনে হচ্ছে মেয়েটিকে হিংসা বা আক্রোশ থেকে হত্যা করা হয়েছে। কারণ, ঘরের কোনো জিনিসপত্র চুরি যায়নি। মনে হচ্ছে মেয়েটিকে হত্যা করতেই এসেছিল খুনি।’

খুনি একা হতে পারে আবার দল বেঁধেও আসতে পারে বলে ধারণা পুলিশের। তবে পড়শিরা টের পাওয়ার আগেই ওই ব্যক্তি বা তার দলের সবাই পালিয়ে যায়।

এমদাদ হোসেন বলেন, চার মাস আগে মেয়েটি তার স্বামীকে তালাক দিয়েছে। ওই ছেলেটির বাড়ি আশেপাশেরই কোনো এলাকায়।

পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বগুড়ার শহীদ জিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় মামলার পর ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দিয়েছে পুলিশ।