রাত ১২:৫৭ বুধবার ১৩ নভেম্বর, ২০১৯


‘গোটা জেলখানায় খালেদা জিয়াকে দেয়া হয়েছে’

নিউজ ডেস্ক | সাহেব-বাজার২৪.কম
আপডেট : ফেব্রুয়ারি ১৩, ২০১৮ , ১০:৩৪ অপরাহ্ণ
ক্যাটাগরি : জাতীয়
পোস্টটি শেয়ার করুন

সাহেব-বাজার ডেস্ক : খালেদা জিয়াকে পরিত্যক্ত কারাগারে রাখা হয়েছে, বিএনপি নেতাদের এমন অভিযোগের জবাবে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিম বলেছেন, গোটা জেলখানাই তো তাকে দেয়া হয়েছে। এত সুন্দর একটি বাড়ি, আরাম আয়েশে আছেন। আর বলা হয় তাকে ডিভিশন দেয়া হয়নি, অমুক দেয়া হয়নি। উনাকে কি পাঁচতারকা হোটেল সোনারগাঁওয়ে রাখা হবে? চুরি করে টাকা আত্মসাৎ করেছে, উনাকেতো কনডেম সেলে রাখা উচিত। উনারতো কাজ করা উচিত।

মঙ্গলবার জাতীয় সংসদে রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর ধন্যবাদ প্রস্তাবের আলোচনায় অংশ নিয়ে এসব কথা বলেন তিনি। এসময় সুযোগ থাকলে ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলায় খালেদা জিয়াকে প্রধান আসামি করা এবং জ্বালাও-পোড়াও করে মানুষ হত্যার দায়ে তার বিরুদ্ধে মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলা দিয়ে বিচার করার দাবি জানান আওয়ামী লীগের এই নেতা।

২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার সময় বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলার পলাতক আসামি কর্নেল ফারুক ও মেজর ডালিম ঢাকায় ছিলেন দাবি করে শেখ সেলিম বলেন, অন্য নামে তাদের ঢাকায় আনা হয়। হামলা শেষে ওই রাতে তাজুল ইসলামসহ চারজনকে সিঙ্গাপুর এয়ারলাইন্সে করে পাঠিয়ে দেয়া হয়। পরে ডিজিএফআইয়ের রুমি খালেদা জিয়াকে বলেছিলেন, ‘ম্যাডাম, এদের কী করে পাঠানো হয়।’ জবাবে খালেদা জিয়া বলেছিলেন, ‘চুপ করো। তুমি এর ভেতরে নাক গলাবা না।’ এ ঘটনার সঙ্গে খালেদা জিয়াও জড়িত ছিল। বাংলাদেশ সরকারকে অনুরোধ করবো, যদি কোনও সুযোগ থাকে খালেদা জিয়াকে একনম্বর আসামি করে ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার বিচার তরান্বিত করুন।

বিএনপির সঙ্গে আলোচনার দাবি নাকচ করে দিয়ে তিনি বলেন, খালেদা জিয়া এখন আলোচনার কথা বলেন। কিসের আলোচনা, কার সঙ্গে আলোচনা। খুনি সন্ত্রাসীর সঙ্গে আলোচনা? স্বাধীনতাবিরোধী অপরাধীদের সঙ্গে কোনো আলোচনা করবে না আওয়ামী লীগ। বিএনপি বিদেশিদের কাছে ধর্না দেয়। নালিশ করে। ওরা কারা? আমার দেশের গণতন্ত্র আমার দেশের জনগণ ঠিক করবে। অন্য কেউ নিয়ন্ত্রণ করবে না।

বিএনপিকে উদ্দেশ্য করে শেখ সেলিম আরো বলেন, ‘বিএনপি কথায় কথায় বলে গণতন্ত্র নাই। গণতন্ত্র আছে বলেই-তো তোরা কথা বলতেছিস। টেলিভিশনে সরকারের বিরুদ্ধে ঘেউ ঘেউ করিস, মিথ্য বলে মানুষকে বিভ্রান্ত করিস’।

এছাড়াও লন্ডনে বাংলাদেশ হাইকমিশনে ভাংচুরের ঘটনায় বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপারসন তারেক রহমান জড়িত দাবি করে তিনি বলেন, ব্রিটিশ সরকারের কাছে আমার প্রশ্ন, এই সন্ত্রাসী, জঙ্গিরা কীভাবে আমাদের হাইকমিশনে ঢুকল? এখানে আপনারা কী ব্যবস্থা নিয়েছেন। আজ যদি এখানে আপনাদের কোনো হাইকমিশনে এ ধরনের ঘটনা ঘটত, সঙ্গে সঙ্গে ব্যবস্থা নিতাম।

এসবি/এমই